• বিশ্বকাপ বাছাই
  • " />

     

    জার্মানিকে চমকে দিল মেসিডোনিয়া, ইতালি-স্পেন-ইংল্যান্ড-ফ্রান্সের জয়

    জার্মানিকে চমকে দিল মেসিডোনিয়া, ইতালি-স্পেন-ইংল্যান্ড-ফ্রান্সের জয়    

    ইউরোর আগে শেষ প্রতিযোগিতামূলক আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলতে নেমেছিল কাল দলগুলো। আর সেদিনই লেখা হলো বড় একটা অঘটন। র‍্যাংকিংয়ে ৬৫ নম্বরে থাকা উত্তর মেসিডোনিয়া হারিয়ে দিয়েছে চার বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন জার্মানিকে, তাও আবার তাদের মাঠে এসে। তবে জয় পেয়েছে ইংল্যান্ড, ইতালি, ফ্রান্স, বিশ্বকাপে যাওয়ার দৌড়ে ভালোমতোই আছে তারা। 

    কদিন আগেই এই ইউরো এসে কোচের দায়িত্ব ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছেন জার্মানির কোচ জোয়াকিম লো। তার আগে জার্মানি বড় একটা হোঁচট খেল কাল। প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে সিরি আর বর্ষীয়ান গোরান পান্দেভের গোলে এগিয়ে যায় মেসিডোনিয়া। ৬৩ মিনিতে ইলকে গুন্ডোগানের পেনাল্টি থেকে সমতা ফেরায় জার্মানি। কিন্তু খেলা শেষের ৫ মিনিট আগে এলফিজ এলমাস গোল করে স্তম্ভিত করে দেন জার্মানদের।  শেষ দিকে গোল করার সুবর্ণ সুযোগ পেয়েছিলেন টিমো ভের্নার, কিন্তু চেলসি স্ট্রাইকার বল মেরে দেন বাইরে। সেজন্য ম্যাচ শেষে লো সমালোচনাই করেছেন তার। এই হারের পর জার্মানি ৬ পয়েন্ট নিয়ে নিজেদের গ্রুপে আছে তিনে। ৯ পয়েন্ট নিয়ে সবার ওপরে আর্মেনিয়া, জার্মানির সমান পয়েন্ট নিয়ে গোলব্যবধানে এগিয়ে দুইয়ে মেসিডোনিয়া। ২০০১ সালের পর এই প্রথম বাছাইপর্বে হারল জার্মানি।

    দিনের আরেকটা বড় ম্যাচ ছিল ইংল্যান্ড ও পোল্যান্ডের। লেভানডফস্কিবিহীন পোল্যান্ডের বিপক্ষে ১৮ মিনিতে হ্যারি কেইনের গোলে এগিয়ে যায় ইংল্যান্ড। ৫৮ মিনিতে মোডার গোল করে সমতা ফেরান। কিন্তু ৮৫ মিনিটে হ্যারি ম্যাগিরের গোলে জয় পায় ইংল্যান্ড। 

    বসনিয়া্র বিপক্ষে ফ্রান্সের জয় এসেছে নূন্যতম গোলে, ৬০ মিনিটে ম্যাচের একমাত্র গোল করেছেন আঁতোইন গ্রিজমান। কষ্টার্জিত পেয়ে বড় অবদান রেখেছেন ফ্রান্স গোলরক্ষক উগো লরিস, প্রথমার্ধে করেছেন দারুণ কিছু সেভ। 

    স্পেনের জয়টা কাল এসেছে সহজেই, কসোভোকে হারিয়েছে ৩-১ গোলে। দানি আলমোর গোলে এগিয়ে যাওয়ার পর স্পেনের হয়ে ব্যবধান বাড়িয়েছেন ম্যান সিটির ফেরান তোরেস। এরপর কসোভো ব্যবধান কমালেও জেরার্দ মরেনোর গোল নিশ্চিত করেছে স্পেনের জয়। 

    অন্যদিকে গত বিশ্বকাপ খেলতে না পারা ইতালি ধরে রেখেছে তাদের দারুণ ফর্ম। সেনসি ও চিরো ইমোবিলের গোলে লিথুয়ানিয়াকে হারিয়েছে তারা। 

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন