• বিশ্বকাপ বাছাই
  • " />

     

    রোনালদোর ছুঁড়ে দেওয়া আর্মব্যান্ড থেকে চিকিৎসা হবে ছয় মাস বয়সী শিশুর

    রোনালদোর ছুঁড়ে দেওয়া আর্মব্যান্ড থেকে চিকিৎসা হবে ছয় মাস বয়সী শিশুর    

    মুহূর্তের মেজাজ হারামোয় রাগ করে আর্মব্যান্ডটা ছুঁড়ে ফেলেছিলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। সেই আর্মব্যান্ড এখন জীবন বাঁচাতে পারে দুরারোগ্য ব্যধিতে আক্রান্ত ছয় মাস বয়সী এক শিশুর। 

    গত সপ্তাহেই সার্বিয়ার বিপক্ষে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের ম্যাচে রোনালদো জন্ম দিয়েছিলেন ঘটনাটার। ম্যাচের একদম শেষ দিকে গোল পেয়েছিলেন, কিন্তু সেটা রেফারি বাতিল করে দেন গোললাইন অতিক্রম না করার জন্য। যদিও রিপ্লেতে দেখা গেছে সিদ্ধান্তটা ভুল ছিল। রেগেমেগে আর্ম্পব্যান্ড ছুঁড়ে ফেলে ফুঁসতে ফুঁসতে মাঠ ছেড়ে যান রোনালদো। সেই ম্যাচটাও জিততে পারেনি পর্তুগাল। 

    রোনালদোর সেই আর্মব্যান্ড পান মাঠে অগ্নি নির্বাপণের দায়িত্বে থাকা  কর্মী জর্জে ভুকেসেভিচ। ঠিক করেন, সেটা নিলামে ওঠাবেন। সেখান থেকে পাওয়া অর্থ দিয়ে সাহায্য করবেন ছয় মাস বয়সী শিশু গাভ্রিলো জুরজেভিচ। গারভ্রিলো স্পাইনাল মাসকুলার ডিসট্রফি নামের রোগে ভুগছে, তার চিকিৎসার জন্য প্রয়োজন প্রায় ২ মিলিয়ন পাউন্ড। ভুকিসেভিচ ঠিক করেন, এই টাকা দিয়ে সাহায্য করবেন গাভ্রিলোকে। নিলামে তোলার পর রোনালদোর আর্মব্যান্ডের মূল্য উঠেছে ৬৪ হাজার ইউরো। পুরোটাই দান করে দেওয়া হয়েছে গাভ্রিলোর চিকিৎসার জন্য তহবিলে। গাভ্রিলোর মাও আবেগাপ্লুত হয়ে বলেছেন, এরকম কিছু হবে তিনি আশাই করেননি। 

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন