• বাংলাদেশের শ্রীলঙ্কা সফর ২০২১
  • " />

     

    নেট সেশন: শ্রীলঙ্কায় এবার ট্রায়াল বাই পেসের সামনে বাংলাদেশ?

    নেট সেশন: শ্রীলঙ্কায় এবার ট্রায়াল বাই পেসের সামনে বাংলাদেশ?    

    বাংলাদেশের শ্রীলঙ্কা সফর, ২০২১
    ১ম টেস্ট

    কবে, কখন
    ২১-২৫ এপ্রিল 
    বাংলাদেশ সময় ১০.৩০ (১০৩০)


    দেশের মাটিতে শ্রীলঙ্কা শেষ টেস্ট সিরিজ জিতেছে ২০১৮ সালে, দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। সে সিরিজে সফল রঙ্গনা হেরাথ-দিলরুয়ান পেরেরার স্পিন বোলিং জুটি আপাতত অতীত হয়ে গেছে তাদের। হেরাথ অবসর নিয়েছেন, পেরেরার ফর্ম পড়তির দিকে বলে ছিলেন না ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে। ২০১৮ সালের পর থেকে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে এক সিরিজ ড্র করার সঙ্গে নিজ কন্ডিশনে শ্রীলঙ্কা ইংল্যান্ডের কাছে হেরেছে দুইবার-- পরেরটি দেশের মাটিতে তাদের শেষ সিরিজ। নিজ মাটিতে শ্রীলঙ্কার সাম্প্রতিক অবস্থান খুব একটা দৃঢ় নয় তাই। 

    তবে তাদের প্রতিপক্ষ বাংলাদেশ- বিদেশের মাটিতে দূরের কথা, নিজেদের কন্ডিশনেই যারা শেষ সিরিজে বাজেভাবে হেরেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে। তার ওপর যোগ হয়েছে নিউজিল্যান্ড সফর, যেখানে ভরাডুবির পর আত্মবিশ্বাস বেশ নিচের দিকেই থাকার কথা তাদের। শ্রীলঙ্কা অবশ্য এ সিরিজে এসেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে অ্যাওয়ে সিরিজ ড্র করে। আবার দেশের বাইরে যে ৪টি টেস্ট জিতেছে বাংলাদেশ, তার সর্বশেষটি এসেছিল এই শ্রীলঙ্কাতেই, ২০১৭ সালে কলম্বোতে। সেটি ফিরিয়ে আনতে হলে আপাতত বেশ কয়েকটা কাজ ঠিকঠাক করতে হবে বাংলাদেশকে। 

    ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে বাংলাদেশের টপ অর্ডার ছিল রুগ্ন, ৪ জন মিলে ১২ ইনিংস খেলে ফিফটি ছিল মাত্র ২টি। সেক্ষেত্রে একটা বড় ভূমিকা পালন করতে হতে পারে তামিম ইকবালকে। তার সঙ্গী হিসেবে সাইফ হাসানের আগে সাদমান ইসলামের কথাই ভাবতে পারে বাংলাদেশ, যদিও প্রস্ততি ম্যাচে সুযোগটা কাজে লাগিয়েছিলেন সাইফ। তিন নম্বর নিয়েও সংশয় আছে বাংলাদেশের, নাজমুল হোসেন শান্ত এখনও তার ওপর রাখা আস্থার প্রতিদানটা দিতে পারেননি ঠিকঠাক। 

    এমনিতে শ্রীলঙ্কার কন্ডিশনে স্পিনারদের বেশ বড় একটা ভূমিকা থাকলেও পাল্লেকেলেতে পেসারদের ভূমিকা হয়ে দাঁড়ায় গুরুত্বপূর্ণ। স্পিনারদের ১২১টি উইকেটের বিপরীতে এখানে পেসাররা নিয়েছেন ৮২টি। বাংলাদেশ ১৫ জনের স্কোয়াডেও রেখেছে ৪ জন পেসার। অবশ্য দেশের মাটিতে উপেক্ষিত পেসাররা হুট করে কেমন পারফরম্যান্স করবেন, সে প্রশ্ন তো থাকে বরাবরই। 

    এসবের সঙ্গে আছে সাকিব আল হাসানের অনুপস্থিতি। আইপিএল খেলবেন বলে এ সফর থেকে ছুটি নিয়েছেন তিনি। যদিও নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফেরার পর ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম টেস্টের আংশিক খেলেছিলেন তিনি, এরপর বাইরে চলে যেতে হয়েছিল তাকে চোটের কারণে। তবে সাকিব বলেই যে কোনো সময়েই তার অনুপস্থিতিটা অন্তত খাতা-কলমে বাংলাদেশকে একটু বেসামাল করেই- সেটা একাদশের ভারসাম্য থেকেই শুরু হয়। 

    সব মিলিয়ে এ সিরিজে বেশ উঁচুদরের ক্রিকেটের দেখা হয়তো মিলবে না হয়তো নিয়মিত। তবে আপাতদৃষ্টিতে বেসামাল দুই দলের সামনে এগুনোর একটা ধাপ হতে পারে এটি। ওয়েস্ট ইন্ডিজ যেমন বাংলাদেশে এসে ভড়কে দিয়েছিল স্বাগতিকদের, তেমন কিছু করতে পারবে বাংলাদেশ? 


     
    রঙ্গমঞ্চ
    পাল্লেকেলে আন্তর্জাতিক স্টেডিয়াম

    ক্যান্ডিতে একসময় শ্রীলঙ্কার টেস্ট ভেন্যু ছিল অ্যাসগিরিয়া স্টেডিয়ামে, কুমার সাঙ্গাকারা যে ট্রিনিটি কলেজে পড়েছিলেন, সেটির মাঠ ছিল সেটি। তবে অ্যাসগিরিয়া থেকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পাল্লেকেলেতে চলে গেছে বেশ কিছুদিন আগেই। অবশ্য এখানে টেস্ট হয় না বরাবর, ২০১০ সালে অভিষেকের পর থেকে এখানে টেস্ট হয়েছে ৭টি, যার সর্বশেষটি ২০১৮ সালে।

    সোমবার শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটের এক ছবিতে পাল্লেকেলের উইকেট পরখ করতে দেখা গিয়েছিল হেড কোচ মিকি আর্থার ও অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নকে। সেখানে ছিল সবুজের আভাস। দুই দলের স্কোয়াডেও আছে সে ইঙ্গিত।
     


    উইকেট তুমি কেমন?/শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট


    যাদের ওপর চোখ

    লিটন দাস 

    ২০১৫ সালে অভিষেক, টেস্টে সেঞ্চুরি ছাড়া এক হাজার রান করা দ্বিতীয় বাংলাদেশী ব্যাটসম্যান এখন তিনি। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষেও দুটি ফিফটি করেছেন লিটন, নিজের সাত নম্বর পজিশনে ফিফটি করেছেন প্রস্তুতি ম্যাচেও। মুশফিকুর রহিম উইকেটকিপিং ছেড়ে দেওয়ার পর থেকে গ্লাভস সামলাচ্ছেন লিটনই। এ সফরে নুরুল হাসান সোহানকে নিয়ে যাওয়া হলেও প্রথম টেস্টের স্কোয়াডে জায়গায় হয়নি তার। লিটন তার ‘ডিউ’ থাকা বড় ইনিংসটা খেলতে পারবেন? 


    পাথুম নিসাঙ্কা

    ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে আলো ছড়িয়েছেন ২২ বছর বয়সী এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান। সেঞ্চুরি করেছেন, করেছেন ফিফটিও। প্রথম শ্রেণিতে ৬০ গড় নিয়ে গিয়েছিলেন এ সিরিজে, টেস্ট অভিষেকেও উজ্জ্বল ছিলেন তিনি। দেশের মাটির প্রথম সিরিজে তেমন কিছু করতে পারবেন নিসাঙ্কা? 

    সম্ভাব্য একাদশ

    দুই দলই চূড়ান্ত স্কোয়াড ঘোষণা করেছে টেস্টের আগেরদিন, সময়ের হিসেবে ২৪ ঘন্টারও কম সময় ব্যবধানে। প্রাথমিক স্কোয়াড থেকে বাংলাদেশের প্রথম টেস্টের স্কোয়াডে জায়গা হয়নি ৬ জনের। আর শ্রীলঙ্কা দুই টেস্টের জন্য দিয়েছে ১৮ জনের দল। 

    নাঈম হাসান বাদ পড়ার কারণে তাইজুল ইসলাম ও মেহেদি হাসান মিরাজ-- খেলার কথা দুজনেরই। পেসে আবু জায়েদ রাহি, তাসকিন আহমেদ, এবাদত হোসেন ও শরিফুল ইসলামের মাঝে ৩ জনকে বেছে নিতে পারে বাংলাদেশ, সেক্ষেত্রে বসে থাকতে হতে পারে শরিফুলকেই। ওপেনিংয়ে তামিমের সঙ্গী হিসেবে থাকার কথা সাদমান ইসলামেরই। যদিও দেশের মাটিতে আয়ারল্যান্ড উলভসের বিপক্ষে সিরিজ এবং শ্রীলঙ্কায় আন্তঃস্কোয়াড প্রস্তুতি ম্যাচে ভাল করেছেন সাইফ হাসান। তিনে উৎরে যেতে পারেন নাজমুল হোসেন শান্ত, প্রস্তুতি ম্যাচে রানের দেখা পেয়েছেন তিনিও। 

    বাংলাদেশ 

    তামিম ইকবাল, সাদমান ইসলাম, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুমিনুল হক (অ), মুশফিকুর রহিম, লিটন দাস, মেহেদি হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, আবু জায়েদ রাহি, এবাদত হোসেন, তাসকিন আহমেদ

    ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দুই টেস্টেই অভিন্ন একাদশ খেলিয়েছিল শ্রীলঙ্কা। তবে সেখান থেকে এবার লাসিথ এমবুলদেনিয়া ও দুশমন্থ চামিরা। ফিরেছেন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস। 

    শ্রীলঙ্কা

    দিমুথ করুনারত্নে, লাহিরু থিরিমান্নে, ওশাদা ফার্নান্ডো/দীনেশ চান্ডিমাল, পাথুম নিসাঙ্কা, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস, ধনঞ্জয়া ডি সিলভা, নিরোশান ডিকওয়েলা, ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা, সুরাঙ্গা লাকমাল, লাহিরু কুমারা, ভিশ্ব ফার্নান্ডো

    সংখ্যার খেলা 

    • সব মিলিয়ে মুমিনুল হকের ক্যারিয়ার গড় ৪১.১৮, বিদেশের মাটিতে সেটি ২২.৩০, শ্রীলঙ্কার মাটিতে ৩৩.৬০
    • রঙ্গনা হেরাথ অবসর নেওয়ার পর থেকে দেশের মাটিতে শ্রীলঙ্কান স্পিনারদের গড় ৩২.৬২, হেরাথের শেষ তিন বছরে যা ছিল ২৭.৮০
       

    চাপ যদি বলেন, আমি তো কোনো চাপে নেই। আমার দলও কোনো চাপে নেই। আমরা এখানে এসেছি ম্যাচ জেতার জন্য। পুরোপুরি চেষ্টা করব ম্যাচ জেতার, এটাই। অবশ্যই শ্রীলঙ্কা ভালো অবস্থানে আছে। আমরা শেষ দুইটা টেস্ট ভালো খেলতে পারিনি। কিন্তু আগেও বলেছি- ক্রিকেটে অতীত নিয়ে চিন্তা করে লাভ নেই। যদি প্রক্রিয়া ঠিক থাকে, ৫ দিন ভালো খেলি, ইনশাআল্লাহ জয় পাব।

    মুমিনুল হক, বাংলাদেশ অধিনায়ক 

    আমরা ওয়েস্ট ইন্ডিজে শেষ সিরিজ খেলেছি, ফলে পেস-সহায়ক উইকেটে খেলার অভিজ্ঞতা আছে আমাদের। বাংলাদেশ পেস সেভাবে ভাল খেলে না, আবার আমাদের পেস আক্রমণ ভাল। আমাদের মূল স্পিনারও ওয়েস্ট ইন্ডিজে চোট পেয়েছে। ফলে উইকেটে ঘাস রাখা হয়েছে। 

    দিমুথ করুনারত্নে, শ্রীলঙ্কা অধিনায়ক
     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন