• নিউজিল্যান্ডের ইংল্যান্ড সফর
  • " />

     

    বর্ণবিদ্বেষী পুরোনো টুইটের জেরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিষিদ্ধ ওলি রবিনসন

    বর্ণবিদ্বেষী পুরোনো টুইটের জেরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিষিদ্ধ ওলি রবিনসন    

    অভিষেক টেস্টের পরই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে পেসার ওলি রবিনসনকে নিষিদ্ধ করেছে ইংল্যান্ড ও ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড। ২০১২ ও ২০১৩ সালে রবিনসনের করা কিছু বর্ণ ও লিঙ্গবিদ্বেষী টুইটের জেরে তার বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে, সেটির ফল না আসা পর্যন্ত ইংল্যান্ডের হয়ে খেলবেন না তিনি। 

    এজবাস্টনে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্টের স্কোয়াডে তাই থাকবেন না রবিনসন। তবে খেলতে পারবেন কাউন্টি ক্রিকেট। আপাতত ইংল্যান্ড ক্যাম্প ছেড়ে নিজ কাউন্টি সাসেক্সে যোগ দেবেন তিনি। বাংলাদেশ সময় সোমবার এক বিবৃতিতে রবিনসনকে নিষিদ্ধ করার ঘোষণা দিয়েছে ইসিবি।



    লর্ডসে মাঠের অভিষেকটা বেশ ভালই কেটেছে রবিনসনের, দুই ইনিংস মিলিয়ে তিনি নিয়েছেন ৭ উইকেট। তবে প্রথম দিন থেকেই টুইট-বিতর্ক জাপটে ধরেছিল তাকে। 

    এ গ্রীষ্মের প্রথম টেস্টে লর্ডসের ওল্ড প্যাভিলিয়নের সামনে ম্যাচ শুরুর আগে বর্ণবাদ, বিদ্বেষের বিপক্ষে স্লোগান সম্বলিত টি-শার্ট পরে দাঁড়িয়েছিলেন ইংল্যান্ড ক্রিকেটাররা। তবে এর পরপরই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে রবিনসনের ৮-৯ বছর আগের টুইট- যেগুলোতে তার বর্ণবাদ, লিঙ্গবিদ্বেষ ছিল স্পষ্ট। 

    এরপর আলাদা করে বিবৃতি দিয়েছিলেন ইসিবির প্রধান নির্বাহী টম হ্যারিসন। তার বিবৃতিতেই রবিনসনের বিপক্ষে ‘হতাশা’ ছিল স্পষ্ট, রবিনসনের বিপক্ষে ডিসিপ্লিনারি তদন্ত শুরুর কথাও জানিয়েছিলেন তিনি। প্রথম টেস্টের পর ইংল্যান্ড স্কোয়াড থেকে তার বাদ পড়াও ছিল কিছুটা অনুমিতই। 

    অবশ্য হ্যারিসনের পর ইসিবির মাধ্যমে বিবৃতি দিয়েছিলেন রবিনসনও। নিজের পক্ষে তিনি বলেছিলেন, সেসব টুইটের পর থেকে ব্যক্তি হিসেবে আরও পরিণত হয়েছেন তিনি, ক্ষমাও চেয়েছিলেন। তবে আপাতত সে বিবৃতিতে পার পাচ্ছেন না ২৭ বছর বয়সী এই পেসার। 
     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন