• ইউরো ২০২০
  • " />

     

    ইসরায়েলকে উড়িয়ে প্রস্তুতি সারল রোনালদো-ব্রুনোর পর্তুগাল

    ইসরায়েলকে উড়িয়ে প্রস্তুতি সারল রোনালদো-ব্রুনোর পর্তুগাল    

    ইউরো মিশনে নামবার আগে ইসরায়েলকে ৪-০ গোলে হারিয়ে প্রস্তুতি ভালোই সেরে নিয়েছে পর্তুগাল। জার্মানি-ফ্রান্সের গ্রুপে কঠিন পরীক্ষার আগে এমন জয় তাদের আত্মবিশ্বাসটা বাড়িয়ে দেবে নিশ্চয়ই।



    অনুমিতভাবেই শুরু থেকেই ম্যাচে আধিপত্য বজায় রাখছিল পর্তুগাল। ইসরায়েল পর্তুগালের গোলে আক্রমণই করতে পারছিল না। তবে পর্তুগালও গোলের দেখা পাচ্ছিল না চেষ্টা করেও। ম্যাচের ৩৬ মিনিটে গোল পাওয়ার একেবারে দারুণ সুযোগ অবশ্য পেয়ে গিয়েছিলেন রোনালদো। ব্রুনো ফার্নান্দেজের ক্রস বক্সের ডান পাশে খুঁজে নিয়েছিলো তাকে। তবে রোনালদো জাল খুঁজে নিতে পারেননি। রোনালদোর বাঁ পায়ের শট গোলকিপার মার্সিয়ানোর গায়ে লেগে ফিরে আসলে গোল বঞ্চিত হয় পর্তুগাল। তবে বেশিক্ষণ গোলের জন্য অপেক্ষা করে থাকতে হয়নি পর্তুগিজদের। 

    ম্যাচের ৪২ মিনিটের সময় থ্রু পাসে পাওয়া বল জোয়াও ক্যানসেলো কাটব্যাক করেন বক্সে। ক্যানসেলোর ক্রসে বাড়ানো বল এরপর বুলেট শটে বটম কর্নার দিয়ে জালে জড়িয়ে দিতে ভুল করেননি ব্রুনো ফার্নান্দেজ। এর দুই মিনিট পর ব্রুনো ফার্নান্দেজেরই আরেক পাস থেকে রোনালদোর গোলে এগিয়ে যায় পর্তুগাল। এরপর ম্যাচ বিরতিতে যায় ২-০ গোলের স্কোরলাইন নিয়ে। 

    দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেও পর্তুগালের আধিপত্য বিস্তারে কোনও পরিবর্তন লক্ষ্য করা যাচ্ছিল না। তবে বক্সে বল পেয়েও কাজে লাগাতে পারছিলেন না রোনালদো-ফার্নান্দেজরা। সবচেয়ে ভালো সুযোগটা যদিও পেয়ে গিয়েছিলেন বার্নার্দো সিলভা। ব্রুনো ফার্নান্দেজের পাস থেকে বল পেয়ে ড্রিবল করে এগিয়ে গোলকিপারকে পরাস্ত করেও এরপর ব্যর্থ হয়ে যান তিনি। 

    দ্বিতীয়ার্ধের প্রায় এক-তৃতীয়াংশ সময়ে বলতে গেলে পর্তুগিজদের কোনও শটই গোলকিপারের কাছে পৌছাচ্ছিল না, এর আগেই তা ব্লকড হয়ে যাচ্ছিল। সেসময়ে একমাত্র আন্দ্রে সিলভাই একটা শট অন টার্গেটে নিতে পেরেছিলেন। তবে ম্যাচের শেষ দশ মিনিটে দেখা মিলেছে ভিন্ন পর্তুগালের। 

    জোয়াও ক্যানসেলো ব্যবধান বাড়িয়েছেন ৮৬ মিনিটে এসে। পর্তুগালের একাধিপত্যের ম্যাচে ইসরায়েলের একক 'অন টার্গেটে' শট এসেছিল সেসময়েই। যদিও তা রুই সিলভার দুর্দান্তে সেভে জাল পর্যন্ত পৌছাতে পারেনি। ইনজুরি টাইমে এরপর ম্যাচে নিজের দ্বিতীয় গোল করে স্কোরলাইনটা ৪-০ তে পরিণত করেছেন ব্রুনো ফার্নান্দেজ। ডান পায়ে টপ কর্নারের দিকে নেওয়া তার দুর্দান্ত শট মুহুর্তেই জড়িয়ে যায় জালে। 

    স্পেনের বিপক্ষে পর্তুগালের আগের ম্যাচে পুরো সময় খেলেননি ফার্নান্দেজ। 'ইউরো রক্ষা' মিশনে নামবার আগে এদিন ম্যাচটা তার কেটেছে দারুণ, তাই ম্যাচটা পর্তুগালের সাথে সাথে তার জন্যেও আত্মবিশ্বাস জোগাবে বেশ ভালো করেই। 

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন