• ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ টি-টোয়েন্টি ২০২১
  • " />

     

    আম্পায়ারের ওপর মেজাজ হারালেন সাকিব, লাথি মেরে ভাঙার পর উপড়ে ফেললেন স্টাম্প

    আম্পায়ারের ওপর মেজাজ হারালেন সাকিব, লাথি মেরে ভাঙার পর উপড়ে ফেললেন স্টাম্প    

    ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে আবাহনীর বিপক্ষে ম্যাচে মেজাজ হারিয়েছেন মোহামেডান অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। দুইবার নন-স্ট্রাইক প্রান্তের স্টাম্পে আঘাত করেছেন তিনি-- প্রথমবার মেরেছেন লাথি, পরেরবার উপড়ে ফেলেছেন তিন স্টাম্প। 



    প্রথম ঘটনা ছিল মুশফিকুর রহিমের বিপক্ষে এলবিডব্লিউ সিদ্ধান্ত আম্পায়ার নাকচ করে দেওয়ার পর, ৫ম ওভারের শেষ বলে রাউন্ড দ্য উইকেট থেকে করা সাকিবের বল মিস করে গিয়েছিলেন মুশফিক। প্রথম দেখায় বেশ ক্লোজ-কলই মনে হচ্ছিল, যদিও আম্পায়ার ইমরান পারভেজ সেটি নাকচ করেছেন। তবে আবেদন শেষ করার সঙ্গে সঙ্গেই আম্পায়ারে সামনে গিয়ে স্টাম্পে লাথি মেরেছেন সাকিব। মোহামেডান সতীর্থরা এসে আবার স্টাম্প ঠিক করার কাজটি করেছেন এরপর। 


    দ্বিতীয়বার সাকিব মেজাজ হারিয়েছেন তার পরের এবং ইনিংসের ৬ষ্ঠ ওভারে। নিজের তৃতীয় ওভারের ৫ম বল করেছিলেন শুভাগত, এরপরই স্ট্রাইক-প্রান্তের আম্পায়ার মাহফুজুর রহমান গ্রাউন্ডসম্যানদের কল করেছিলেন কাভার আনার জন্য। সাকিব সে সময় ছিলেন কাভারের দিকে, সেখান থেকে এসে ক্ষুব্ধ তিনি নিজেই তুলে ফেলেছেন তিন স্টাম্প। এরপর এক স্টাম্প আবার পুঁতে দেওয়ার অঙ্গভঙ্গিও করতে দেখা গেছে তাকে। 
     


    উত্তাপ অবশ্য শেষ হয়নি সেখানেই। খেলা শেষ পর্যন্ত বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর দুই দল যখন উঠে যাচ্ছিল ড্রেসিংরুমের দিকে, তখন বিপরীত দিকে যেতে দেখা গেছে সাকিব এবং আবাহনীর কোচ খালেদ মাহমুদ সুজনকে। সুজনকে শান্ত করতে দেখা গেছে মোহামেডানের শামসুর রহমান শুভকে। 

    ১৪৬ রানতাড়ায় ব্যাটিং করা আবাহনী ৯ রানেই হারিয়ে ফেলেছিল ৩ উইকেট। বৃষ্টির আগে ডিএল পদ্ধতিতেও পরিষ্কার ব্যবধানে এগিয়ে আছে মোহামেডান। 

    এর আগে ব্যাটিংয়ে সাকিব করেছেন ৩৫ রান, ২৭ বলে ৩৭ রান। পরে বোলিংয়ে তখন পর্যন্ত ১ ওভারে দিয়েছিলেন ১০ রান। 
     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন