• ইউরো ২০২০
  • " />

     

    মাঠে লুটিয়ে পড়ার পর হাসপাতালে স্থিতিশীল এরিকসেন

    মাঠে লুটিয়ে পড়ার পর হাসপাতালে স্থিতিশীল এরিকসেন    

    কাঁদছে ডেনমার্কের খেলোয়াড়েরা, স্তম্ভিত ফিনল্যান্ডের খেলোয়ারেরা। মাঠে দর্শকেরা ভাষা হারিয়ে ফেলেছেন, কাঁদছেন তারাও। ক্রিশ্চিয়ান এরিকসেনের জন্য কাঁদছে সবাই। মাঠে জ্ঞান হারিয়ে পড়ে গেছেন এই ডেনিশ প্লেমেকার। পরে তাকে নিয়ে যাওয়া হয়েছে মাঠের বাইরে। ইউয়েফা ডেনমার্ক ও ফিনল্যান্ডের ম্যাচটা স্থগিত করেছে। 

    ৩৮ মিনিটে থ্রো ইনের সময় হঠাৎ মাঠে লুটিয়ে পড়েন এরিকসেন। তখনই বোঝা যায় তার খারাপ কিছু হয়েছে। মাঠেই সিপিআর দিতে দেখা গেছে চিকিৎসক দলকে। বেশ অনেকক্ষণ মাঠে জরুরি চিকিৎসার পর স্ট্রেচারে করে তাকে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বাইরে।



    পরে ইউয়েফা জানিয়েছে, হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে এরিকসেনকে। আপাতত শারীরিকভাবে তার অবস্থা স্থিতিশীল আছে। এই অবস্থায় জরুরি বৈঠকে বসেছেন দুই দলের সবাই। ডেনমার্ক ফেডারেশন নিশ্চিত করেছে, এরিকসেন সজাগ আছেন ও পরীক্ষা করা হচ্ছে তাকে। আপাতত এরিকসেন জীবিত আছেন, এটাই অনেক অনেক বড় স্বস্তি দেবে সবাইকে। 

    ম্যাচটা অবশ্য পরে শুরু হয়েছে। তাতে পজপানহালোর গোলে এগিয়ে গিয়েছিল ফিনল্যান্ড। ডেনমার্ক অবশ্য পেনাল্টি থেকে সমতা ফেরানোর সুযোগ পেয়েছিল, কিন্তু কাজে লাগাতে পারেনি। হয়বিয়ার পেনাল্টি ঠেকিয়ে দিয়েছেন ফিনিশ গোলরক্ষক হ্রাডেকি। শেষ পর্যন্ত ফিনল্যান্ড জয় পেয়েই মাঠ ছেড়েছে। তবে কোনো উদযাপন না করে জানিয়ে দিয়েছে, জয় পরাজয়ের চেয়েও এই ম্যাচে বড় ছিল অন্যকিছু।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন