• ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ টি-টোয়েন্টি ২০২১
  • " />

     

    কেন্দ্রীয় চুক্তি ঘোষণার আগে 'ব্যাখ্যা' চায় বিসিবি, বানানো হচ্ছে 'শ্যাডো' জাতীয় দল

    কেন্দ্রীয় চুক্তি ঘোষণার আগে 'ব্যাখ্যা' চায় বিসিবি, বানানো হচ্ছে 'শ্যাডো' জাতীয় দল    

    ২০২১ সালের জন্য বিসিবির কেন্দ্রীয় চুক্তিতে থাকা ক্রিকেটারদের তালিকাকে বোর্ড অনুমতি দিলেও ক্রিকেট অপারেশনস নির্দিষ্ট কয়েকজনের অন্তর্ভুক্তি বা বাদ পড়ার ব্যাখ্যা চায় বলে সেটি এখনই প্রকাশ করা হচ্ছে না। কে কোন ফরম্যাটে খেলতে আগ্রহী, সে ব্যাপারেও আগে ক্রিকেটারদের সঙ্গে আলোচনা করতে চায় তারা। এছাড়া মেয়ে ক্রিকেটারদের ২২ জন আসছেন কেন্দ্রীয় চুক্তিতে, গঠন করা হবে ‘শ্যাডো ন্যাশনাল টিম’ বা ‘ছায়া জাতীয় দল’ নামে একটি কাঠামো। মঙ্গলবার বিসিবির বোর্ড মিটিং শেষে এসব জানিয়েছেন বিসিবি প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান পাপন। 



    শেষ কেন্দ্রীয় চুক্তিতে লাল ও সাদা বলের জন্য দুই সেটের ক্রিকেটার রেখেছিল বিসিবি। আইসিসির নিষেধাজ্ঞার কারণে সেখানে ছিলেন না সাকিব আল হাসান। তবে শেষ শ্রীলঙ্কা সফরে- যেখানে বাংলাদেশ শুধু দুই টেস্ট খেলেছে- ছুটি নিয়েছিলেন তিনি আইপিএলে খেলতে যাবেন বলে। তখনোই সাকিবের টেস্ট খেলার ইচ্ছার ব্যাপারে আলোচনা এসেছিল, যদিও পরবর্তীতে গণমাধ্যমে সাকিব বলেছেন, তিনি টেস্ট খেলতে চান না এমন কখনোই বলেননি। 

    তবে বিসিবি সাকিবের সেই ছুটি চাওয়ার সময়ই বলেছিল, পরবর্তী কেন্দ্রীয় চুক্তির আগে শর্ত জুড়ে দেবেন তারা। কে কোন ফরম্যাটে আগ্রহী, সেটি জানার পরই চুক্তিতে রাখা হবে তাদের। এদিন বোর্ড মিটিং শেষে পাপন বলেছেন, চুক্তিতে যাদের রাখা হয়েছে, তাদের সঙ্গে ‘কথা’ বলবেন আগে তারা, “সাকিবের ব্যাপারটা এখনও চূড়ান্ত হয়নি। তাদের সঙ্গে কথা বলা হয়নি, কে কোন ক্রিকেটে (ফরম্যাটে) আগহী। আমাদের ফরম্যাটও করা হয়েছে কিন্তু তাদের কাছ থেকে তো জানতে হবে। কেউ যদি খেলতে না চায় টেস্ট তাহলে তো জানতে হবে। তাই তাদের সঙ্গে আগে কথা বলে দেখতে হবে যা এখনও আমরা পারিনি। কিন্তু কাল পরশুর মধ্যে ক্রিকেট অপারেশনস জানিয়ে দেবে। ১৮-২০ জন আছে, কিছু নতুনও আছে। কিন্তু কে চুক্তিতে ঢুকছে, কে বের হচ্ছে এর একটা ব্যাখ্যা দরকার। আজকের মিটিংয়ে সবই ছিল কিন্তু ব্যাখ্যা ছিল না। সবই ঠিক আছে, এটা আমরা ক্রিকেট অপারেশনসের কাছে ছেড়ে দিয়েছি। তারাই জানাবে।”

    কেন্দ্রীয় চুক্তির সঙ্গে শ্যাডো জাতীয় দল গঠন করার কথাও বলেছেন তিনি, কেন এমন ভাবনা, ব্যাখ্যা করেছেন সেটিও, “শ্যাডো ন্যাশনাল টিম- বাংলাদেশ টাইগারস নামে একটি দল গঠন করা হবে- যারা জাতীয় দলে ডাক পায় না বা বাদ পড়ে- যেমন ইমরুল-সৌম্য থাকে না- তারা নাকি অনুশীলন করারও সুযোগ পায় না। তারা কই করবে। ঘাটতি থাকলে। সেখান থেকেই- সারা বছর ধরে (এটি চলবে)। ইচ্ছা আছে আপাতত স্থানীয়দের দিয়ে কোচিং করানো। ধরেন ওপেনিংয়ে- এখন ট্রায়াল অ্যান্ড এররে ট্রাই করি- কে ভাল খেলল। যদি জাতীয় দলে কোনো পজিশনে কাউকে দরকার হয়, তাহলে ‘শ্যাডো’ দল থেকে নিয়ে নেবে।” 

    এছাড়া বিসিবির বোর্ড মিটিংয়ে জাতীয় দলের নির্বাচক প্যানেলের মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে এ বছরের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য। আইসিসি নতুন এফটিপি সাইকেলে ওয়ার্ল্ড ইভেন্ট ঘোষণার পর বিসিবি এদিন জানিয়েছে, ছেলেদের বিশ্বকাপ ও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজনের জন্য পর্যাপ্ত ভেন্যু তাদের নেই বলে উপমহাদেশের অন্যান্য দেশগুলির সঙ্গে যৌথভাবে বিড করবে তারা। তবে ফিরে আসা চ্যাম্পিয়নস লিগের জন্য বিড করবে এককভাবেই। 

    সঙ্গে বিসিবির বার্ষিক এজিএমের জন্য ৭ জুলাই তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। ২০২১-২২ মৌসুমের জন্য ২৬০ কোটি টাকার বাজেটও অনুমোদন করা হয়েছে এদিনের বোর্ড মিটিংয়ে। 

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন