• রিও অলিম্পিক ২০১৬
  • " />

     

    ইতিহাস গড়ে অলিম্পিকে বাঙালি তরুণী

    জিমন্যাস্টিক্সে তাঁর হাতেখড়ি মাত্র ছ’ বছর বয়সে, ভারোত্তোলন কোচ বাবার অনুপ্রেরণায়। শৈশব, কৈশোর পেরিয়ে দীপা কর্মকার এখন বাইশ বছরের তরুণী। আর এই বয়সেই কিনা গোটা ভারতবর্ষের হয়ে নতুন এক ইতিহাস গড়তে চলেছেন। অলিম্পিক গেমসের ইতিহাসে প্রথম ভারতীয় প্রমীলা জিমন্যাস্ট হিসেবে আসন্ন রিও অলিম্পিকে অংশগ্রহণ নিশ্চিত করেছেন আগরতলার মেয়ে দীপা।

    ভারতের হয়ে এই ইভেন্টে সর্বশেষ ছয়জন পুরুষ প্রতিযোগী অংশ নিয়েছিলেন ১৯৬৪ সালে, টোকিও অলিম্পিকে। সেটিও আবার কোনো প্রকার বাছাইপর্ব ছাড়াই। ৫৪ বছর পর জিমন্যাস্টিক্সে ভারতের পতাকা বহন করতে যাওয়া দীপা গত শনিবার একটি বৈশ্বিক টুর্নামেন্টে সোনাও জিতেছেন।

    বৈশ্বিক কোনো আসরে ভারতকে এই প্রথম জিমন্যাস্টিক্সে সোনা এনে দেয়া দীপার সাফল্য অবশ্য এটাই প্রথম নয়। দু’ বছর আগের গ্লাসগো কমনওয়েলথ গেমসে ব্রোঞ্জ জিতেছিলেন। একই ভেন্যুতে সে বছর বিশ্ব আর্টিস্টিক জিমন্যাস্টিক্সে ফাইনালে উঠলেও অল্পের জন্য শিরোপা হাতছাড়া হয়।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন