• লা লিগা
  • " />

     

    অ্যাটলেটিকোকে জিততে দিলেন না সুয়ারেজ

     

    ঘড়ির কাঁটা ক্রমশ এগিয়ে যাচ্ছে, ১-০ গোলে এগিয়ে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। লা লিগায় এই মৌসুমের প্রথম পরাজয় চোখ রাঙাচ্ছে এরনেস্তো ভালভের্দের বার্সেলোনাকে। শেষ বাঁশি বাজতে বাকি আর ৮ মিনিট, অ্যাটলেটিকোর রক্ষণ দুর্গ কিছুতেই ভাঙতে পারছেন না মেসিরা। সেই মুহূর্তে সারজিও রবার্তো ক্রস করলেন , ডি বক্সে প্রতিপক্ষের ডিফেন্ডারের মার্কিং এড়িয়ে দারুণ এক হেডে বল জালে জড়ালেন লুইস সুয়ারেজ। সুয়ারেজের এই গোলেই পরাজয় এড়িয়েছে বার্সা, ধরে রেখেছে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষস্থান।

     

    ম্যাচের ৩০ সেকেন্ডেই অবশ্য মেসির গোলে এগিয়ে যেতে পারত বার্সা। সুয়ারেজের পাসে গোল করতে পারেননি মেসি। এরপর প্রথম ১০ মিনিটে দুবার এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ পেয়েছিল অ্যাটলেটিকো। ৮ ও ৯  মিনিটে আঁতোইন গ্রিজমানের জোরালো শট বাঁচিয়ে দেন বার্সা কিপার টের স্টেগেন।

     

    রক্ষণভাগের এই ছন্নছাড়া হালে বেশিক্ষণ প্রতিপক্ষকে আটকে রাখতে পারেনি বার্সা। ২১ মিনিটে দলকে এগিয়ে দেন অ্যাটলেটিকোর সল নিগেজ। ইয়ানিক ক্যারাসকোর পাসে ডি বক্সের বাইরে থেকে করা নিগেজের দুর্দান্ত শট বাঁচানোর কোনো সুযোগই পাননি স্টেগেন। ৩৯ মিনিটে মেসির শট ঠেকিয়ে দেন অ্যাটলেটিকো কিপার। ৫৩ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করতে পারতেন গ্রিজমান, তাঁর শট অল্পের জন্য পোস্টের বাইরে দিয়ে গেলে হাফ ছেড়ে বাঁচে বার্সা রক্ষণভাগ।

     

     

    ৬৬ মিনিটে সমতা আনার সুযোগ পেয়েছিলেন মেসি। সুয়ারেজের পাসে তাঁর শট আবারো বাঁচিয়ে দেন জ্যান অবলাক। ৭১ মিনিটে মেসির শট পোস্টে লাগে। কিছুতেই যেন অবলাক বাধা পেরোতে পারছিলেন না বার্সা ফরোয়ার্ডরা। শেষ পর্যন্ত সুয়ারেজের  হেডে করা গোলেই এক পয়েন্ট নিয়ে বাড়ি ফিরেছে কাতালানরা। এই মৌসুমে লা লিগায় নিজের তৃতীয় গোল করলেন সুয়ারেজ।

     

    এই ড্রয়ে ৮ ম্যাচে ২২ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষেই আছে বার্সা। গেটাফের বিপক্ষে জয়ের পর বার্সার চেয়ে ৫ পয়েন্ট পেছনে থেকে দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে রিয়াল মাদ্রিদ। সমান ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে উঠে এসেছে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। 

     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন