• " />

     

    ফিফায় কার ভোট কার বাক্সে?

    ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো প্রথম হবেন, সেটা অনুমিতই ছিল। লিওনেল মেসির দুই আর নেইমারের তিনে থাকায়ও বিস্ময়ের কিছু নেই। সতীর্থ ফুটবলার, কোচ আর সাংবাদিকদের ভোটেই নির্বাচিত হয়েছে ফিফা বর্ষসেরা পুরস্কার। কিন্তু রোনালদো কাকে ভোট দিয়েছেন? মেসির ভোটই বা গেছে কার বাক্সে?

    প্রতি বছরের মতো এবারেও এখানে কোনো চমক নেই। মেসি যেমন যথারীতি বেছে নিয়েছেন তিন বার্সা সতীর্থকে, রোনালদোর ভোটও গেছে তিন রিয়াল মাদ্রিদ সতীর্থের কাছে। মেসি একে রেখেছেন সুয়ারেজকে। ইনিয়েস্তা দুইয়ে এবং নেইমার (এখন অবশ্য আর বার্সা সতীর্থ নেই) আছেন তিনে। আর রোনালদো সবার ওপরে রেখেছেন লুকা মদ্রিচকে। তাঁর দুইয়ে আছে সার্জিও রামোস এবং তিনে মার্সেলো। নেইমার গত বছর ব্রাজিলের অধিনায়ক ছিলেন না, তাই ভোট দেওয়ার সুযোগ পাননি। তবে ব্রাজিলের হয়ে তাঁর কাজটা করে দিয়েছেন দানি আলভেসের, তাঁর ভোট গেছে নেইমারের বাক্সেই। আলভেস দুইয়ে রেখেছেন মেসি এবং তিনে রোনালদোকে।

    মজার ব্যাপার, মদ্রিচ আবার সব ভোট রিয়াল সতীর্থদের দেননি। প্রথম ভোট রোনালদোকে দিলেও দুইয়ে রেখেছেন মেসিকে। নয়্যারও আবার সেরা তিনের কাউকেই নিজের প্রথম তিনে রাখেননি। ক্রুস তাঁর এক নম্বর পছন্দ, এর পরেই আছেন বায়ার্ন সতীর্থ লেভানডফস্কি ও ভিদাল।

    জিয়ানলুইজি বুফন নিজের ভোটটা দিয়েছেন রোনালদোকেই। তবে দুইয়ে রেখেছেন নিজের ক্লাবের পাউলো দিবালাকে, আর তিনে রেখেছেন মদ্রিচকে। ডাচ অধিনায়ক রোবেনও বেছে নিয়েছেন পুরনো ক্লাবের তিনজনকে- রোনালদো, রামোস এবং মার্সেলো। ক্লাব সতীর্থকে বেছে নেওয়ার একটা প্রবণতা অবশ্য আছেই। হ্যাজার্ড যেমন ভোট দিয়েছেন চেলসি সতীর্থ এনগলো কান্তেকে।

    তবে কোচদের নির্বাচনে আছে কিছু চমক। ব্রাজিল কোচ তিতে যেমন এক নম্বর ভোট স্বদেশী নেইমার নন, ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোকেই দিয়েছেন। তাঁর ভোটে নেইমার আছেন দুইয়ে, মেসি তিনে। তবে আর্জেন্টিনার কোচ হোর্হে সামপাওলি সবার আগে মেসিকেই রেখেছেন, এরপর রেখেছেন রোনালদো এবং মার্সেলোকে।

    সাংবাদিদের বেলায়ও ব্রাজিল থেকে যিনি ভোটের সুযোগ পেয়েছেন, নেইমার তাঁর সেরা তিনেই নেই। রোনালদোকেই তিনি রেখেছেন সবার আগে।   

    প্রশ্ন উঠতেই পারে, বাংলাদেশের পক্ষ থেকে ভোট কাদের কাছে গেছে? অধিনায়ক মামুনুলের প্রথম পছন্দ যেমন রোনালদো; এরপর আছেন মেসি ও বুফন। আবার বাংলাদেশের কোচ অ্যান্ড্র ওর্ডের সেরা তিনে রোনালদো, মেসি, নেইমারের কেউ নেই। ওর্ডের একে সুয়ারেজ, দুই এবং তিনে আছেন গ্রিজমান ও বুফন। আর বাংলাদেশের সাংবাদিকদের পক্ষ থেকে রায়হান মাহমুদ সবার ওপরে রেখেছেন রোনালদো, এবং মেসি ও বুফন।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন