• বাংলাদেশ-দক্ষিণ আফ্রিকা
  • " />

     

    হারের পর ক্যাসিনোতে বাংলাদেশের তিন জন

    টেস্ট ও ওয়ানডে দুই ফরম্যাটেই ধবলধোলাই হয়েছে দল। দলের অধিনায়ক মাশরাফি এটাও বলেছেন, এই সফর বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্য ‘সতর্কবার্তা’। তৃতীয় ওয়ানডেতে ২০০ রানের বিশাল ব্যবধানের পরাজয়ের রেশ কাটতে না কাটতেই জানা গেলো, ওই ম্যাচের পর নাকি তিনজন বাংলাদেশি ক্রিকেটার ক্যাসিনোতে গিয়েছিলেন!

    ডেইলি স্টার জানিয়েছে, দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজের শেষ ওয়ানডের পর তাসকিন আহমেদ, শফিউল ইসলাম ও নাসির হোসেন ইস্ট লন্ডনের একটি ক্যাসিনোতে গিয়েছিলেন। তারা রাত ৯ টার দিকে প্রিমিয়ার হোটেল আইসিসি থেকে বের হয়েছিলেন বলেই জানা যায়।

    এদিকে এই ঘটনা ঘটেছে বাংলাদেশ দলের প্রধান নির্বাচক ও ম্যানেজার মিনহাজুল আবেদিনের অগোচরেই। তবে পরে ঘটনাটি জানতে পেরে তিনি বলছেন, ক্যাসিনোতে গিয়ে কোনো ‘নিয়মভঙ্গ’ করেননি তিন ক্রিকেটার, “যেহেতু পরের দিন কোনো ম্যাচ ছিল না, তাই আমরা রাত ১০ টা পর্যন্ত সময় বেধে দিয়েছিলাম হোটেলে ফেরার। তাঁরা আমাকে বলেছে যে, ডিনার করতে বাইরে বেরিয়েছিল ও রাত ১০ টার মাঝেই হোটেলে ফিরেছে সবাই। তাদের সাথে দক্ষিণ আফ্রিকার কাগিসো রাবাদা ও এবি ডি ভিলিয়ার্সও ছিলেন।”

    মিনহাজুল আবেদিন বলছেন, নিয়ম না ভাঙলেও এই ব্যাপারটা টিম মিটিংয়ে আলোচনা করবেন, “আমার জানামতে তাঁরা ক্যাসিনোতে খেলেননি। তবুও তাঁদের এই ব্যাপারটা আমি ব্লুমফন্টেইনের টিম মিটিংয়ে ব্যক্তিগতভাবে অবশ্যই উত্থাপন করব।” এখন পর্যন্ত এই ব্যাপারে ওই তিন ক্রিকেটারের কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি। 

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন