• ক্রিকেট

জাতীয় দলে ফেরার আশা আশরাফুলের


বাংলাদেশ জাতীয় দলে ফেরার আশা পুষিয়ে রেখেছেন মোহাম্মদ আশরাফুল। ১৩ আগস্ট নিষেধাজ্ঞা শেষ হচ্ছে ম্যাচ-ফিক্সিং ও স্পট-ফিক্সিংয়ের দায়ে নিষিদ্ধ থাকা সাবেক বাংলাদেশ অধিনায়কের। ইএসপিএনক্রিকইনফোকে আশরাফুল বলেছেন, আবার বাংলাদেশের হয়ে খেলতে পারলে সেটা হবে তার সবচেয়ে বড় অর্জন। 

ঘরোয়া ক্রিকেটে আশরাফুলের নিষেধাজ্ঞা শেষ হয়েছে আরও দুই বছর আগেই। গত দুই মৌসুমে ঘরোয়া ক্রিকেটও খেলেছেন তিনি। লিস্ট ‘এ’-তে রানের দেখা পেয়েছেন, তবে দীর্ঘ সংস্করণে জ্বলে উঠতে পারেননি। 

“অনেকদিন ধরেই আমি ১৩ আগস্ট, ২০১৮-এর জন্য অপেক্ষা করছি”, বলেছেন আশরাফুল, “আমার সম্পৃক্ততা (ফিক্সিংয়ে) স্বীকার করার পর পাঁচ বছরের বেশি পেরিয়ে গেছে। যদিও ঘরোয়া ক্রিকেটে শেষ দুই মৌসুমে খেলেছি, এখন জাতীয় দলে ডাক পাওয়ার জন্য আমার কোনও বাধা নেই। আবার বাংলাদেশের হয়ে খেলতে পারলে সেটা হবে আমার সবচেয়ে বড় অর্জন।” 

“(ঘরোয়া ক্রিকেটে) ফেরার পর প্রথম মৌসুমটা আমার ভাল যায়নি। তবে ২০১৭-১৮ মৌসুমে আমি ভাল খেলেছি। সামনের মৌসুমগুলোতে আরও ভাল খেলার আশা করছি।

“আমি জাতীয় দলের জন্য এখন বিবেচ্য হব। এরই মাঝে মাসব্যাপী অনুশীলনে গিয়েছি, ১৫ আগস্টের পর প্রাক-মৌসুম অনুশীলনে যাব আসছে মৌসুমে জাতীয় ক্রিকেট লিগের জন্য।” 

২০১৩ সালের বিপিএলে ম্যাচ-ফিক্সিং ও স্পট-ফিক্সিংয়ে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেন আশরাফুল। ২০১৪ সালের জুনে প্রথমে আট বছরের জন্য নিষিদ্ধ করা হলেও আপিল ট্রাইবুনাল সে শাস্তি কমিয়ে আনে পাঁচ বছরে। এর বিরুদ্ধে অবশ্য আপিল করেছিল বিসিবি ও আইসিসি। তবে আশরাফুলের শাস্তি বাড়েনি আর। ২০১৩ সালের ১৩ আগস্ট শেষ হয়েছিল বিপিএল, ২০১৮ সালের একই দিনে শেষ হচ্ছে আশরাফুলের নিষেধাজ্ঞাও।