• ফুটবল

একই কোচকে তিনবার বরখাস্ত করল জেনোয়া

ইতালিয়ান লিগে নতুন মৌসুমে কোচ ছাঁটাই শুরু হয়ে গেছে! তাও একজন নয়, দুই ক্লাব ছাঁটাই করেছেন নিজেদের কোচ, আর দুইজন হারিয়েছেন চাকরি। জেনোয়া আর কিয়েভো দুই ক্লাবই করেছে ছাঁটাই। কিয়েভোর সিদ্ধান্ত অবাক করা না হলেও জেনোয়ার ম্যানেজার বদলটা একটু অদ্ভুতই। লিগে এই মৌসুমে কোনো ম্যাচ জিততে না পারায় ছাঁটাই হয়েছেন কিয়েভোর ম্যাচ। 



লিগে তুলনামূলক ভালো শুরুর পরও   ক্লাব প্রেসিডেন্টের মন ভরাতে পারেননি ডাভিডে বালার্দনি। জেনোয়া আছে পয়েন্ট তালিকার ১১ নম্বরে। গত সপ্তাহে পার্মার কাছে ঘরের মাঠে ৩-১ গোলের হারটাই তাতিয়ে দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট এনরিকো প্রেজিয়সিকে। বালার্দনিকে বরখাস্ত করেই ঝাল মেটেনি তার, তাকে বলেছেন ‘জঘন্য কোচ’।

“সে আসলে একটা জঘন্য কোচ। গত ১৪ বছরে ১৩ বার বরখাস্ত হয়েছে সে। শুধুমাত্র সিরি সি এর একটা ক্লাবের হয়ে সে মৌসুমের শেষ পর্যন্ত গিয়েছিল।“

অথচ এই বালার্দিনিকেই প্রেজিয়সি নিজেই নিয়োগ দিয়েছেন ৩ বার। ২০১৬-১৭ সালে নিয়োগ দিয়ে, বরখাস্ত করে আরেকবার তাকে নিয়োগ দিয়েছিলেন প্রেসিজিয়স। তারপর এবার আবার তাকে ফিরিয়ে এনেছিলেন এই মৌসুমের শুরুতে। এই সিদ্ধান্তটাই তার ভুল বলে স্বীকার করছেন প্রেজিয়সি, “বালার্দিনি মানুষ হিসেবে ভালো, কিন্তু কে কোনো কাজের না। পিচে সে দল নামিয়ে কী করতে হয় সেটা সে জানে না”

“আমরা কয় নম্বরে আছি সেটা কোনো ব্যাপার না। আমরা এই মৌসুমে এরই মধ্যে ৭ ম্যাচে ১৩ গোল হজম করে ফেলেছি। পার্মার কাছে ঘরের মাঠে হেরেছি ৩-১ গোলে। পার্মা আমাদের তুলনায় খারাপ দল। আমাদের দলে সিরি আর সর্বোচ্চ গোলদাতা আছে। পয়েন্ট টেবিলের অবস্থানটা তার জন্যেই। আর আমার চেয়েও ভালো অবস্থান দরকার।“

নতুন কোচ হিসেবে ইভান জুরিচকে নিয়োগ দেওয়ার পর অবশ্য আশার কথা শুনিয়েছেন জেনোয়া প্রেসিডেন্ট। অবশ্য দুইদিন পর তিনি আবার মত বদলালেও অবাক হওয়ার থাকবে না তেমন কিছুই!