• প্রীতি ম্যাচ
  • " />

     

    সেই ইকার্দিই চাইছেন মেসি ফিরুক!

     

    লিওনেল মেসির জন্যই নাকি আর্জেন্টিনা জাতীয় দলে ব্রাত্য ছিলেন তিনি। অভিষেকের পর দীর্ঘ চার বছর মাউরো ইকার্দির দলে না থাকার কারণ হিসেবে অনেকেই বলতেন এমনটাই। শুধু তাই নয়, রাশিয়া বিশ্বকাপে ইকার্দিকে বাদ দেওয়ার পেছনে নাকি হাত ছিল মেসিরই! কাল জাতীয় দলের হয়ে নিজের প্রথম গোলের দেখা পেয়েছেন ইকার্দি, অন্যদিকে বিশ্বকাপের পর থেকেই আর্জেন্টিনার হয়ে খেলছেন না মেসি। সেই ইকার্দিই এবার বলছেন, তিনি চান মেসি যেন দ্রুততম সময়ে দলে ফিরুক।

    এই বছর আর্জেন্টিনার হয়ে আর ফিরবেন না মেসি, এটা অনেকটা নিশ্চিত। তবে আগামী বছরেও কখন ফিবেন তিনি, সেটা বলতে পারছেন না কেউই। কোপা আমেরিকাকে সামনে রেখে দলের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ফুটবলারকে চান ইকার্দিও, ‘মেসি বিশ্বের সেরা ফুটবলার। সব দল চায় তাদের এরকম একজন থাকুক। আশা করি তিনি তাড়াতাড়ি ফিরে আসবেন। সামনের বছরটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। কোপা আমেরিকার আগেই তাকে আমরা দলে চাই।’

    একটা সময় ব্যক্তিগত কারণে আর্জেন্টিনা দলে নানা সমস্যার মুখোমুখি হতে হয়েছিল ইকার্দিকে। এখন সিনিয়র-জুনিয়র দ্বন্দ্ব ও ব্যক্তিগত সেই সমস্যা একেবারেই নেই বলে জানালেন ইকার্দি, ‘আমি এই দলে আগেও খেলেছি। তখন ড্রেসিংরুমের পরিবেশটা অন্যরকম ছিল। এখন অবস্থা পুরোপুরি বদলে গেছে। এখন সিনিয়র থেকে জুনিয়র, সবাই একসাথে কাজ করে। কোচিং স্টাফও এই ব্যাপারটা ভালোভাবেই সামলান। আশা করি ভবিষ্যতেও এটা বজায় থাকবে।’

    প্রায় পাঁচ বছর পর জাতীয় দলের হয়ে প্রথম গোল পেলেন ইকার্দি। দলের পরিবেশ বদলে যাওয়ার পাশাপাশি বদলে যাবে তাঁর আর্জেন্টিনা ক্যারিয়ারও, এমনটা প্রত্যাশা করতেই পারেন এই ইন্টার মিলান স্ট্রাইকার।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন