• সিরি আ
  • " />

     

    • সিরি আ

    জুভেন্টাসকে হারিয়ে শীর্ষ চারের লড়াই আরও জমিয়ে তুলল রোমা

    জুভেন্টাসের লিগ শিরোপা নিশ্চিত হয়েছে অনেক আগেই। রোমার বিপক্ষে ম্যাচের ফলাফল নিয়ে তাই হয়ত খুব বেশি মাথাব্যথা ছিল না তুরিনের ক্লাবটির। তবে রোমার জন্য ম্যাচটা ছিল মহা গুরুত্বপূর্ণ। চ্যাম্পিয়নস লিগে খেলার আশা বাঁচিয়ে রাখতে হলে জয়টা একটু বেশিই দরকার ছিল তাদের। আলেসান্দ্রো ফ্লোরেঞ্জি ও এডিন জেকোর গোলে জুভেন্টাসকে ২-০ ব্যবধানে হারিয়ে শীর্ষ চারের আশা বাঁচিয়ে রাখল রোমা।

    শেষ তিন ম্যাচের দুটিতেই পয়েন্ট হারিয়েছিল রোমা। ক্যালয়ারির সাথে জিতলেও ইন্টার মিলান ও জেনোয়ার সাথে ড্র করেছিল তাঁরা। শীর্ষ চারের লড়াইয়ে টিকে থাকলে হলে জুভেন্টাসের বিপক্ষে পুরো তিন পয়েন্টের প্রয়োজন ছিল রোমার। প্রথমার্ধের পুরোটা সময় অবশ্য দাপট দেখিয়েছে জুভেন্টাসই। ৬ মিনিটে হুয়ান কুয়াদ্রাদো, ১৬ মিনিটে পাউলো দিবালার শট ঠেকিয়ে দেন রোমা কিপার। স্রোতের বিপরীতে সুযোগ এসেছিল রোমার লরেঞ্জো পেলিগ্রিনির সামনে, পাল্টা আক্রমণে পাওয়া বলে তাঁর ডান পায়ের শট পোস্টে লেগে ফিরে আসলে লিড নেওয়া হয়নি রোমার।

    ২৮ মিনিটে আবার দিবালাকে হতাশ করেন মিরান্তে। প্রথমার্ধে আর তেমন কোন সুযোগ তৈরি করতে পারেনি দুই দলই। দ্বিতীয়ার্ধের ৬৫ মিনিটে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর গোলে এগিয়ে গিয়েছিল জুভেন্টাস। তবে ভিএআরের সাহায্য নিয়ে সেই গোল বাতিল করেন রেফারি। এরপর রোনালদোর সাথে একদফা তর্কে জড়িয়েছিলেন ফ্লোরেঞ্জি। এক পর্যায়ে ফ্লোরেঞ্জিকে চুপ থাকার ইঙ্গিতও করেন রোনালদো।

    ৭৯ মিনিটে সেই ফ্লোরেঞ্জির গোলেই ম্যাচে লিড নেয় রোমা। জেকোর পাসে বল পেয়ে বক্সের ভেতর থেকে দারুণ এক চিপে সেজনিকে বোকা বানান ফ্লোরেঞ্জি। ৯২ মিনিটে পাল্টা আক্রমণ থেকে ব্যবধান দ্বিগুণ করে রোমার জয় নিশ্চিত করেন জেকো।

    এই জয়ে রোমার পয়েন্ট দাঁড়াল ৩৬ ম্যাচে ৬২। এই মুহূর্তে তাঁরা আছে ষষ্ঠ স্থানে। ৩৬ ম্যাচ খেলে সমান পয়েন্ট নিয়ে গোল ব্যবধানে এগিয়ে থেকে পঞ্চম স্থানে আছে এসি মিলান। ৩৫ ম্যাচে ৬৩ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থানে আছে ইন্টার মিলান, আজ শিয়েভোর মুখোমুখি হবে তাঁরা। ৩৬ ম্যাচে ৬৫ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে আছে আটালান্টা।

     

     

    নিজেদের শেষ দুই ম্যাচে সাসুউলো ও পারমার মুখোমুখি হবে রোমা। নিজেদের জয়ের পাশাপাশি ইন্টার, এসি মিলান ও আটালান্টার হারও চাইবে তাঁরা।