• ক্রিকেট, অন্যান্য
  • " />

     

    'নিরাপত্তা-হুমকির' পরও পাকিস্তান সফরে যাচ্ছে শ্রীলঙ্কা

    পূর্ব-নির্ধারিত সূচি অনুযায়ীই পাকিস্তান সফরে যাচ্ছে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দল। এর আগে শ্রীলঙ্কা দলের ওপর হামলার হুমকি দিয়ে সে দেশের প্রধানমন্ত্রীর অফিসে আসা চিঠির পর সংশয়ে পড়ে গিয়েছিল এ সফর। তবে পাকিস্তান সরকার শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটকে আগের মতোই রাষ্ট্রীয় প্রধানের নিরাপত্তা প্রদানে পুনরায় আশ্বস্ত করেছে, তাতে সন্তুষ্ট হয়েছে তারা। 

    “শ্রীলঙ্কায় নিযুক্ত পাকিস্তান হাই কমিশনার সরকারের পক্ষ থেকে শ্রীলঙ্কা সরকারকে শ্রীলংকা জাতীয় দলকে রাষ্ট্রীয় প্রধানের সমান নিরাপত্তা প্রদানের ইচ্ছা পুনরায় ব্যক্ত করে আশ্বস্ত করছে”, এক বিবৃতিতে বলেছেন শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের সেক্রেটারি মোহান ডি সিলভা। 

    এ মাসের শেষদিকে ও অক্টোবরের শুরুতে লাহোর ও করাচিতে তিনটি করে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি খেলতে যাওয়ার কথা শ্রীলঙ্কার। এ সফরের জন্য এরই মাঝে দলও ঘোষণা করেছে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট। যদিও ব্যক্তিগত কারণে এ সফর থেকে নিজেদের সরিয়ে নিয়েছেন ১০ জন শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটার। অবশ্য আগে থেকেই ক্রিকেটারদের এ অপশন দিয়ে রেখেছিল শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট, চাইলেই যে কেউ সরিয়ে নিতে পারেন নিজেকে। 

    ২০০৯ সালে লাহোরে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলের টিম বাস ও ম্যাচ অফিশিয়ালদের বাসে সন্ত্রাসী হামলার পর থেকেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থমকে গেছে পাকিস্তানে। এর মাঝে কিছু দলকে নিয়ে গেছে তারা, তবে সে দেশের ক্রিকেটের জন্য শ্রীলঙ্কার এই সফর বেশ একটা উন্নতি বলেই বিবেচ্য হওয়ার কথা। 

     

     

    এফটিপিতে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টির সঙ্গে টেস্টও খেলার কথা শ্রীলঙ্কার। তবে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের আশা, শ্রীলঙ্কাকে সেখানে নিয়ে গিয়ে টেস্টও খেলানো। লাহোর আক্রমণের পর থেকেই পাকিস্তান তাদের সব ‘হোম’ টেস্ট খেলে আসছে সংযুক্ত আরব আমিরাতে।