• বাংলাদেশের বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব
  • " />

     

    'বাংলাদেশের সাথে ভারতের আরও ভালো ডিফেন্ডিং করা উচিত ছিল'

    কলকাতার সল্ট লেক স্টেডিয়ামে হয়তো জয় নিয়েই মাঠ ছাড়তে পারত বাংলাদেশ। শেষ মুহূর্তে ভারতের আদিল খানের দারুণ এক হেড সেটা হতে দেয়নি। হার এড়ালেও ঘরের মাঠে পয়েন্ট হারানোটা মানতে পারছেন না ভারতের কোচ ইগর স্টিমাচ। ম্যাচ শেষে স্টিমাচ বলছেন, বাংলাদেশ যেভাবে খেলে, তাতে ভারতের আরও ভালো ডিফেন্ডিং করা উচিত ছিল। বিশেষ করে গোলরক্ষক গুরপ্রীত সিংয়ের ভুলে সাদ উদ্দিনের গোলটা কিছুতেই মানতে পারছেন না স্টিমাচ। 

    বাংলাদেশ কালকের ম্যাচে বেশ কয়েকটি গোলের সুযোগ তৈরি করেছিল। বাংলাদেশের কাউন্টার অ্যাটাকিং স্টাইলের ফুটবল এরকম কিছু করবে, আগেই জানতেন স্টিমাচ, ‘আমরা জানতাম বাংলাদেশ এরকম বেশ কিছু সুযোগ পাবে। কারণ এক দল যখন আক্রমণে বেশি থাকে, তখন প্রতিপক্ষ এরকম সমস্যার সৃষ্টি করতে পারে। আমরা আগের চেয়ে অন্যরকম ফুটবল খেলার চেষ্টা করছি, আরও বেশি কৌশলি হতে চাচ্ছি। কিন্তু এখনো সেটার অনেক পথ বাকি।’

    পুরো ম্যাচজুড়েই স্টিমাচের কপালে ছিল চিন্তার ভাজ

     

    প্রথমার্ধে বাংলাদেশই চাপে রেখেছিল ভারতকে। প্রথম ৪৫ মিনিটের খেলায় তাই একদমই খুশি হতে পারেননি স্টিমাচ, ‘আমি প্রথমার্ধের খেলায় খুশি নই। আমি ম্যাচের আগে ফুটবলারদের বলেছিলাম, খেলাটা বাংলাদেশের মতো দলের সাথে, যারা নয়জন ডিফেন্ডার রাখবে। আমাদের পাসিং তাই আরও বেশি নিখুঁত হওয়া উচিত ছিল। আমাদের রক্ষণভাগও পেছন থেকে ভালো পাস দিতে পারেনি। তারা অনেক বেশি সময় বল পায়ে রেখেছে, এটা মেনে নেওয়া যায় না।’ 

    সাদ উদ্দিনের গোলটা মেনে নিতে পারছেন না স্টিমাচ, ‘বাংলাদেশ কয়েকটি ভালো সুযোগ পেয়েছিল পুরো ম্যাচে। আমরা যে গোল হজম করেছি সেটা হাস্যকর। যখন আপনি ম্যাচ জিততে চাইবেন তখন এমন গোল খাওয়া যাবে না। আমরা ভালো ফুটবল খেলেছি, জয়টা আমাদের প্রাপ্য ছিল। ফুটবলারদের থেকে সাহস ও উদ্যম আশা করেছিলাম, তারা সেটা দেখিয়েছে।’