• সাকিবের নিষেধাজ্ঞা
  • " />

     

    টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপসহ যা যা মিস করবেন সাকিব

    ভারতীয় জুয়াড়ি দীপক আগারওয়ালের প্রস্তাবের কথা আকসুকে না জানিয়ে সব ধরনের ক্রিকেট থেকে দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন সাকিব আল হাসান। এই দুই বছরের মাঝে আপাতত এক বছর ক্রিকেট থেকে দূরে থাকতে হবে তাকে। আইসিসির সব নিয়ম মেনে চললে এক বছর পরেই ফিরতে পারবেন খেলায়। এই এক বছরের মাঝে অনেকগুলো সিরিজ মিস করবেন সাকিব। তার মাঝে সবচেয়ে বড় টুর্নামেন্ট হচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। 


    আরও পড়ুনঃ ভারতীয় সেই জুয়াড়ির সাথে যে কথোপকথন হয়েছিল সাকিবের


    নিষেধাজ্ঞার কারণে সবার প্রথমে সাকিব মিস করতে যাচ্ছেন ভারত সফর। প্রথমবারের মতো পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে ভারতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। সেখানে তিনটি টি-টোয়েন্টি ও দুটি টেস্ট খেলবেন মাহমুদউল্লাহ-মুশফিকরা। ইডেনের দ্বিতীয় টেস্টটি হবে ভারত ও বাংলাদেশের ইতিহাসের প্রথম দিবারাত্রির টেস্ট। ২০২০ সালের জানুয়ারিতে পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ খেলার কথা আছে বাংলাদেশের। ভেন্যু ঠিক না হলেও সেটা হবে পাকিস্তানের হোম সিরিজ। সেই সিরিজে তিনটি টি-টোয়েন্টি ও দুটি টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ। 

    মার্চে বাংলাদেশে আসছে জিম্বাবুয়ে। তারা খেলবে একটি টেস্ট ও পাঁচটি টি-টোয়েন্টি। ১৮ মার্চ থেকে ২১ মার্চ বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে অল স্টার এশিয়া ও বিশ্ব একাদশের মাঝে দুটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ আয়োজন করতে পারে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। সাকিব খেলতে পারবেন না সেখানেও। 


    আরও পড়ুনঃ দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ সাকিব, তবে খেলতে পারবেন এক বছর পরেই


    মে মাসে আয়ারল্যান্ড সফরে যাবে বাংলাদেশ। সেখানে তারা খেলবে একটি টেস্ট, তিনটি ওয়ানডে ও তিনটি টি-টোয়েন্টি। জুনে বাংলাদেশ সফরে আসবে অস্ট্রেলিয়া, তারা খেলবে দুই টেস্ট। জুলাইয়ে শ্রীলংকা সফরে যাচ্ছে বাংলাদেশ। লংকানদের মাটিতে বাংলাদেশ খেলবে তিনটি টেস্ট। আগস্টে বাংলাদেশ সফরে আসবে নিউজিল্যান্ড। তারা এখানে খেলবে দুটি টেস্ট। অক্টোবরের শুরুতে নিউজিল্যান্ড সফরে গিয়ে তিনটি টি-টোয়েন্টি খেলবে বাংলাদেশ। 

    ১৮ অক্টোবর অস্ট্রেলিয়াতে শুরু হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ, চলবে ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত। সেখানেও দলের সাথে থাকতে পারছেন না সাকিব। যদিও সাকিবের নিষেধাজ্ঞা উঠবে ২৯ অক্টোবর, বিশ্বকাপের মাঝপথে দলের সাথে যোগ দেওয়ার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের পাশাপাশি সাকিব খেলতে পারবেন না বিপিএল ও বাংলাদেশের ঘরোয়া লিগে। 

    সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী বছরের ডিসেম্বরে ঘরের মাটিতে শ্রীলংকার বিপক্ষে সিরিজ দিয়েই ক্রিকেটে ফিরবেন সাকিব।