• সিরি আ
  • " />

     

    দিবালার গোলেই শীর্ষে ফিরল জুভেন্টাস

    আগের ম্যাচেও পুরো ৯০ মিনিট খেলেননি ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। এসি মিলানের বিপক্ষে ম্যাচেও মাত্র ৫৫ মিনিটের মাথায় রোনালদোকে তুলে নিয়েছেন মাউরিসিও সারি। আগের ম্যাচের মতো এবারো রোনালদোর বদলি হিসেবে নেমেছিলেন পাউলো দিবালা। সেই দিবালার গোলেই শেষ পর্যন্ত মিলানকে ১-০ গোলে হারিয়ে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে ফিরেছে তুরিনের ওল্ড লেডিরা। 

    নিজেদের শেষ ছয় লিগ ম্যাচে মিলানের জয় তিনটিতে। আগের ম্যাচেও সান সিরোতে লাতসিওর কাছে হেরেছিল তারা। জুভেন্টাস স্টেডিয়ামে ম্যাচের প্রথম ১৫ মিনিটের মাঝেই এগিয়ে যেতে পারত জুভেন্টাস। রোনালদোর বাড়ানো বলে গঞ্জালো হিগুয়াইনের শট ঠেকিয়ে দেন মিলান কিপার ডোনারুমা। কয়েক মিনিট পর এগিয়ে যাওয়ার সুযোগ এসেছিল মিলানের সামনেও। লুকাস পাকেতার দারুণ এক হেড বাঁচিয়ে দিয়েছেন সেজনি। বিরতির ঠিক আগে থিও হার্নান্দেজ ও পিয়াতেকের শটও রুখে দেন জুভেন্টাস গোলরক্ষক। 

    রোনালদোর বদলি হিসেবে নামছেন দিবালা 

     

    বিরতির পরপরই সবাইকে খানিকটা চমকে দিয়ে রোনালদোকে উঠিয়ে নেন সারি। গত মৌসুমে মোট দুইবার বদলি হয়েছিলেন রোনালদো, এবার মৌসুমের প্রথম তিন মাসেই দুইবার বদলি হলেন তিনি। তার বদলি হিসেবে নেমে জুভেন্টাসের আক্রমণের ধার বাড়িয়ে দেন দিবালা। ৬৮ মিনিটে পেতে পারতেন গোল, বক্সের বাইরে থেকে নেওয়া তার বাঁ পায়ের শট বাঁচিয়ে দেন ডোনারুমা। 

    নির্ধারিত সময়ের ১৩ মিনিট আগে আর দিবালাকে আটকাতে পারেননি ডোনারুমা। হিগুয়াইনের পাসে বল পেয়ে ডান পায়ের শটে বল জালে জড়ালে উল্লাসে মাতে জুভেন্টাস। মিলানের বিপক্ষে লিগে এটি তার সপ্তম গোল। অন্য কোনো প্রতিপক্ষের সাথে এতো বেশি গোল করেননি দিবালা। ৯৪ মিনিটে নিজের দ্বিতীয় গোলের সুযোগ পেলেও সেটা কাজে লাগাতে পারেননি এই আর্জেন্টাইন। 

    ১২ ম্যাচে ৩২ পয়েন্ট নিয়ে ইন্টার মিলানকে সরিয়ে আবার শীর্ষে ফিরল জুভেন্টাস। অন্যদিকে সমান ম্যাচে ১৩ পয়েন্ট নিয়ে ১৪তম স্থানে নেমে গেছে মিলান। জুভেন্টাস স্টেডিয়ামে টানা ৯ লিগ ম্যাচ হারা প্রথম দল হলো মিলান।