• সিরি আ
  • " />

     

    মাফিয়াচক্রে জড়ানোর অপরাধে সাড়ে তিন বছর জেল সাবেক জুভেন্টাস ফরোয়ার্ডের

    মাফিয়া চক্রে জড়ানোর অপরাধে সাড়ে তিন বছরের জেল খাটতে হচ্ছে সাবেক জুভেন্টাস এবং ইতালি ফরোয়ার্ড ফ্রাব্রিৎসিও মিকোলির। ১০ জানুয়ারি প্রায় বছর দুয়েক ধরে চলা মামলার আনুষ্ঠানিক রায় দেন ইতালির সুপ্রীম কোর্ট। রায় বিপক্ষে গেলেও আপিলের সুযোগ থাকছে মিকোলির।

    স্কাই ইতালিয়া জানিয়েছে, ইতালিয়ান মাফিয়া ডন আন্তোনিনো কালদেরনের পুত্র মাউরো লরিসেলার থেকে ২০ হাজার ইউরো ধার নিয়েছিলেন মিকোলি। তবে সাবেক ইতালি ফরোয়ার্ড টাকা নিজের জন্য নেননি, নিয়েছিলেন তার এক বন্ধুর ধার মেটানোর জন্য সাহায্য করতে। মিকোলির বন্ধু সিসিলি শহরের আইসোলা দেল ফেমিন নামক জায়গার এক নৈশক্লাব কিনে নিয়েছিলেন সেখানকার এক ব্যবসায়ীর থেকে। কিন্তু মিকোলির বন্ধু দেউলিয়া হয়ে যাওয়ায় দীর্ঘদিন ঐ ব্যবসায়ীর কর্য মেটাতে পারেননি। বন্ধুকে অনৈতিকভাবে সাহায্য করতে যাওয়াই শেষ পর্যন্ত কাল হয়ে দাঁড়াল মিকোলির জন্য।

     

     

    মিকোলির রায় এ বছর হলেও যার সাহায্যে অনৈতিকভাবে বন্ধুর জন্য টাকা ধার করেছিলেন, সেই ব্যক্তিকে ২০১৯-এই ৭ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছিল ইতালিয়ান আদালত। উকিলরা আপিলের কথা নিশ্চিত করলেও নিজের জন্য নতুন সমস্যা তৈরি করেছেন মিকোলি নিজেই। মামলা চলার সময় মাফিয়া-বিরোধী জজ গিওভানি ফ্যালকনের সমালোচনা করে মিকোলির এক ফোনালাপের রেকর্ডিং পেয়েছে সরকারপক্ষ। তার বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগও এনেছেন তারা।

    ৪০ বছর বয়সী মিকোলি পুরো ক্যারিয়ারই কাটিয়েছেন ইতালিতেই। ১৯৯৬ সালে কাসারানোর হয়ে ক্যারিয়ার শুরু করে লেচ্চের হয়ে ২০১৫ সালে ফুটবলকে বিদায় বলেছিলেন তিনি। ২০০২ থেকে ২০০৪ সাল পর্যন্ত জুভেন্টাসের হয়েও খেলেছেন তিনি। তবে খুব সম্ভবত ক্যারিয়ারের সেরা সময়টা কাটিয়েছেন পালের্মোতে। ২০০৭ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত ক্লাবটির হয়ে ১৬৫ ম্যাচে ৭৪ গোল করেছেন তিনি। ২০০৩ সালে ইতালির হয়ে অভিষেক হলেও 'আজ্জুরি'দের হয়ে মাত্র ১০ ম্যাচ খেলেছেন তিনি, গোল করেছেন ২টি।