• ক্রিকেট, অন্যান্য
  • " />

     

    মাশরাফির অনুরোধে তাকে কেন্দ্রীয় চুক্তিতে রাখছে না বিসিবি

    মাশরাফি বিন মুর্তজার অনুরোধে তাকে সামনের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে রাখছে না বিসিবি। নতুন চুক্তিতে নতুন কাউকে সুযোগ দিতে তাকে যাতে না রাখা হয়, সে ব্যাপারে অনুরোধ করেছিলেন বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক। বিসিবি সায় দিয়েছে সেটিতে, জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান পাপন। 

    গত বছরের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল, মাহমুদউল্লাহ ও মুশফিকুর রহিমের সঙ্গে এ প্লাস ক্যাটাগরিতে ছিলেন মাশরাফি। তবে বাকিরা সব ফরম্যাটে খেললেও মাশরাফি খেলেন শুধু ওয়ানডেই। ২০০৯ সালের পর টেস্ট খেলেননি তিনি, ২০১৭ সালে অবসর নিয়েছেন টি-টোয়েন্টি থেকেও। 

    বিশ্বকাপের পর আর ওয়ানডেও খেলেননি মাশরাফি, শ্রীলঙ্কা সফরের দলে শুরুতে অধিনায়ক থাকলেও শেষ মুহুর্তে ছিটকে পড়েছিলেন চোটের কারণে। এরপর বেশ কিছুদিন মাঠের ক্রিকেট থেকেই দূরে থাকা মাশরাফি আবার ফিরেছেন এই বিপিএল দিয়েই। গ্রুপপর্বের শেষ ম্যাচে ফিল্ডিংয়ের সময় আবার চোটে পড়েছেন তিনি। 

    নিজের ক্যারিয়ারের ভবিষ্যত নিয়ে সম্প্রতি মাশরাফি জানিয়েছিলেন, বিসিবি চাইলেই জাতীয় দলে খেলতে রাজি আছেন তিনি। তবে সেরকম কিছু না হলেও বিপিএল, ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে চালিয়ে যেতে চান খেলা। 

    আর পাপন মাশরাফিকে নিয়ে বলছেন, ‘আয়োজন’ করে এখনও তাকে বিদায় জানাতে চান তারা, “ওকে একবার প্রস্তাব দিয়েছিলাম। বিশ্বকাপের পর জিম্বাবুয়ের সঙ্গে ওয়ানডে খেলে, সেটি প্রায় চূড়ান্তও করেছিলাম। পরে সে রাজি হয়নি, সে এই বিপিএল পর্যন্ত দেখতে চেয়েছিল। এখন পত্রপত্রিকায় দেখেছি, ঘটা করে অবসরের ইচ্ছাই নেই তার।

    “আমরা তো চাইবই, তাকে খুব ভালভাবে বিদায় দিতে। এখন পর্যন্ত এমন বিদায় কেউ পায়নি, কেউ পাবেও বলে মনে হয় না। সে চাইলে ভাল, না হলে তো কিছু করার নেই।” 


     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন