• সিরি আ
  • " />

     

    সবাইকে ভুল প্রমাণ করবেন সানচেজ?

    সোশ্যাল মিডিয়ার অন দিস ডের কল্যাণে কিছুদিন আগে অ্যালেক্সিস সানচেজের পিয়ানো বাজানোর ভিডিওটি হয়ত আরেকবার চোখে পড়েছে আপনার। সানচেজের আর্সেনাল থেকে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে যোগ দেওয়ার ভিডিও ছিল সেটি। দুই বছর পর ভিডিও নিয়ে হাসি-ঠাট্টাই হয়েছে বেশি।

    দেড় বছর ওল্ড ট্রাফোর্ডে কাটিয়ে সানচেজ বেশিরভাগ সময় ছিলেন নিজের ছায়া হয়ে। মাঠে খুঁজেই পাওয়া যায়নি তাকে। ৪৫ ম্যাচে মাত্র ৫ বার গোল উদযাপনের সুযোগ পেয়েছিলেন সানচেজ। ওল্ড ট্রাফোর্ডে 'ব্যর্থ' যাত্রা কাটিয়ে ইন্টার মিলানে ধারে যোগ দিয়েছিলেন সানচেজ। চুক্তিতে ধারের মেয়াদ ছিল এক বছরের, ইউনাইটেডে ফেরারও কোনো শর্ত ছিল না তাতে। 

    ইন্টার মিলানে যোগ দিয়েও অবশ্য ইনজুরি পিছু ছাড়েনই সানচেজের। মাত্র সাত ম্যাচ খেলার সুযোগ হয়েছে তার নেরাজ্জুরিদের জার্সি গায়ে। তবে এর পরও ম্যান ইউনাইটেড কোচ ওলে গানার সোলশার বলছেন সানচেজকে ফেরত আনতে চান তিনি। শুধু তাই নয় সানচেজ নাকি ফিরে সবাইকে ভুলও প্রমাণ করবেন! 

    "আমি নিশ্চিত সানচেজ ফিরে আপনাদের সবাইকে ভুল প্রমাণ করবে।"- মঙ্গলবার সাংবাদিককদের উদ্দেশ্যে করে বলেছেন সোলশার। ইউনাইটেডে সানচেজ ছিলেন সবচেয়ে বেশি বেতন পাওয়া খেলোয়াড়। ইন্টারে যোগ দেওয়ার পরও সানচেজের বেতনের বড় একটি অংশ এখনও ইউনাইটেড দিয়ে যাচ্ছে বলেও গুঞ্জন আছে।

    সানচেজ অবশ্য ইন্টারে যোগ দেওয়ার সময় বলেছিলেন ইউনাইটেডে জার্সি গায়ে চড়িয়ে তার কোনো আক্ষেপ নেই। এখন সোলশার বলছেন সেরা খেলোয়াড়দের হারাতে চায়না তার দল, "আমরা এখানে খেলোয়াড়দের ফিরে পেতে চেষ্টা করছি। শীতকালীন দলবদলের বাজারটা কঠিন। সবসময়ই এমন ছিল। ক্লাব তার সেরা খেলোয়াড়দের হারাতে চায় না।" 

    "জানুয়ারিতে আমরা কয়জন ভালো খেলোয়াড় দলে ভিড়িয়েছে সেটা আমার ঠিক মনে নেই, হেনরিক (লারসন), নেমানিয়া (ভিদিচ), প্যাট্রিসরা (এভরা)  অবশ্য ভালো ছিল।"

    ইনজুরির কারণে মার্কস র‍্যাশফোর্ড ছিটকে গেছেন দল থেকে। এর পর এখন একরকম স্ট্রাইকার ছাড়াই খেলতে হচ্ছে ম্যান ইউনাইটেডকে। আগামীকাল কারাবাও কাপের সেমিফাইনালে ম্যানচেস্টার সিটির বিপক্ষে খেলবে ইউনাইটেড। প্রথম লেগে  ৩-১ গোলে হেরেছিল রেড ডেভিলরা। 

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন