• লা লিগা
  • " />

     

    মেসি-আবিদালের ইট-পাটকেলে বার্সেলোনায় গৃহদাহ

    বার্সেলোনার সমস্যা যেন শেষই হচ্ছে না! ম্যানেজার বদল, একের পর এক চোটের সমস্যা, ট্রান্সফার মার্কেটে কুলিয়ে উঠতে না পারা..এর মাঝে এবার শুরু হলো মেসি –আবিদালের কথার যুদ্ধ।  ক্লাব সমর্থকদের চক্ষুশূল হয়ে যাওয়া ম্যানেজার আরনেস্তো ভালভার্দেকে গত ১৩ জানুয়ারি তার পদ থেকে অব্যাহতি দেয় বার্সেলোনা। ক্লাবের স্পোর্টিং ডিরেক্টর এরিক আবিদালের মতে, খেলোয়াড়দের অসহযোগিতার ফলেই দীর্ঘ হয়নি ভালভার্দের বার্সা অধ্যায়। তবে সেটার জবাবে লিওনেল মেসিও বলেছেন, আবিদালকে আরও দায়িত্বশীল আচরণ করা উচিত।

    খেলা ছাড়ার পর আবিদাল জড়িয়ে আছেন বার্সার সাথে। ক্লাবের স্পোর্টিং ডিরেক্টর হিসেবে অনেক গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্তে তার বড় ভূমিকা আছে। ভালভার্দের বিদায়ের পর এতোদিন এ নিয়ে প্রকাশ্যে নিজের মত দেননি। এবার কাতালান দৈনিক স্পোর্তকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে আবিদাল দায়টা চাপালেন বার্সার ফুটবলারদের ওপর,  “অনেক খেলোয়াড় তাকে (ভালভার্দে) নিয়ে খুশি ছিল না যার ফলে তারা খুব একটা পরিশ্রম করত না। এছাড়া কোচের সঙ্গে খেলোয়াড়দের দূরত্ব ছিল। মোদ্দাকথা, কোচ এবং ড্রেসিং রুমের সম্পর্ক খুব একটা ভালো ছিল না। একজন সাবেক খেলোয়াড় হিসেবে বিষয়টি বোঝা আমার জন্য মোটেই কঠিন ছিল না। তাই আমি ক্লাবের সঙ্গে কথা বলে ভালভার্দের ব্যাপারে একটি সিদ্ধান্তে পৌঁছেছি,”। 

     কিন্তু ক্লাবের দায়িত্বশীল পদে থাকা একজনের এমন বেফাঁস মন্তব্যকে মোটেই সহজভাবে নিতে পারেননি মেসি। সাধারণত এসব ব্যাপারে মেসি নিজের কথা খোলাখুলি বলেন না। এবার নিজের অফিসিয়াল ইন্সটাগ্রামে সংবাদটির একটি ছবি পোস্ট করে একটা বোমাই ফাটালেন, “আমি এ ধরনের কথা বলতে পছন্দ করি না। কিন্তু আমি মনে করি, মানুষকে নিজেদের সিদ্ধান্তগুলোর ব্যাপারে আরো দায়িত্বশীল হতে হবে। মাঠে যা হয় তার জন্য অবশ্যই খেলোয়াড়রা দায়ী। আমরা ভালো না খেললে সেটার দায়িত্ব আমরা নিজেদের কাঁধে তুলে নিই। ঠিক একইভাবে স্পোর্টিং ডিরেক্টরের দপ্তরকেও তাদের নেয়া সিদ্ধান্তগুলোর দায়িত্ব নিতে হবে।“

    অনেক খেলোয়াড় ভালভার্দেকে নিয়ে খুশি ছিল না, আবিদাল এই মন্তব্যেরও কড়া জবাব দিয়েছেন মেসি, “আপনি যখন খেলোয়াড়দের নিয়ে কথা বলবেন তখন আপনাকে নির্দিষ্ট করে নাম বলতে হবে। নয়ত আপনার কথা শুধু অসত্য বিষয়গুলোকেই উস্কে দেয়।”

    ইএসপিএনের সূত্রমতে, মেসি সহ বেশ কয়েকজন খেলোয়াড় সবসময় ভালভার্দের পাশে ছিলেন। এমনকি ড্রেসিং রুমে সিনিয়র খেলোয়াড়দের সমর্থনের কারণেই নাকি গত চ্যাম্পিয়ন্স লিগে লিভারপুলের সঙ্গে বাজেভাবে হেরে বিদায় নেয়ার পরও ম্যানেজার পদে টিকে গিয়েছিলেন ভালভার্দে। তাই আবিদালের মন্তব্যটি মেসির কাছে কাঁটার মতো মনে হওয়াটাই স্বাভাবিক।