• জিম্বাবুয়ের বাংলাদেশ সফর
  • " />

     

    নেট সেশন : 'অধিনায়ক' মাশরাফির শেষ ম্যাচে চক্র ভাঙতে পারবে জিম্বাবুয়ে?

    নেট সেশন : 'অধিনায়ক' মাশরাফির শেষ ম্যাচে চক্র ভাঙতে পারবে জিম্বাবুয়ে?    

    ৩য় ওয়ানডে
    বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে

    কবে, কখন
    ৬ মার্চ, ২০২০
    বাংলাদেশ সময় ২ টা (১৪০০)


    ডেড রাবার ছিল, এক ঘোষণার পর সেই ডেড রাবারের গায়ে জুড়লো আরেকটা তকমা। সিলেটে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ম্যাচটা অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার শেষ। শেষবারের মতো টস করতে নামবেন তিনি। সিরিজ আগেই জিতে যাওয়ার পরও শেষ ম্যাচটা তাই পাচ্ছে একটা বাড়তি উপলক্ষ্য। 

    ২০১৪ সালে এই জিম্বাবুয়ের বিপক্ষেই মাশরাফি পেয়েছিলেন এ মেয়াদে অধিনায়কত্বের দায়িত্ব, সেবার সে সিরিজের আগে ওয়ানডেতে জয়শূন্য বাংলাদেশ তাদেরকে করেছিল হোয়াইটওয়াশ। তাদের বিপক্ষেই অধিনায়কত্বের এক চক্রপূরণ হচ্ছে মাশরাফির। 

    সিরিজের প্রেক্ষাপটে দ্বিতীয় ম্যাচে জিম্বাবুয়ে দিয়েছিল ঘুরে দাঁড়ানোর ইঙ্গিত। দুই ম্যাচেই প্রথম ইনিংসে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশের ফর্মুলা ছিল একই- ওপেনিংয়ে সেঞ্চুরি, এরপর মোটামুটি জুটিতে ভিত শক্ত করা, শেষে গিয়ে ক্যামিও ইনিংসে ৩০০ পেরিয়ে যাওয়া। 

    অবশ্য প্রথম ম্যাচে ব্যাটিংয়ের মতো বোলিংয়েও দাপুটে থাকা বাংলাদেশ দ্বিতীয় ম্যাচে হুট করেই চাপে পড়ে গিয়েছিল ডোনাল্ড টিরিপানো ও টিনোটেন্ডা মুতোমবোদজির জুটিতে। টিরিপানো জিম্বাবুয়েকে প্রায় পার করিয়েছিলেন, শেষ পর্যন্ত থ্রিলার হয়ে ওঠা ম্যাচটা তাদেরকে হারতে হয়েছিল অনেক দূরে গিয়েও। 

    দ্বিতীয় ম্যাচে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছিল মোস্তাফিজুর রহমান, সাইফউদ্দিনকে- তাদেরকে ছাড়া বোলিং আক্রমণ পড়েছিল ভাল এক চ্যালেঞ্জের মুখেই। 

    জিম্বাবুয়ে তাই উজ্জীবিত থাকবে, শেষ ম্যাচে সান্ত্বনার জয় পেতে। তবে সেজন্য একটা ইতিহাস গড়তে হবে তাদের। মাশরাফির নেতৃত্বে জিম্বাবুয়ের কাছে এর আগে কখনোই হারেনি বাংলাদেশ। 

    মাশরাফির চক্রপূরণের দিনে সে চক্রটা ভাঙতে পারবে জিম্বাবুয়ে? নাকি ‘অধিনায়ক’কে আরেকটি জয়ে বিদায় দেবে বাংলাদেশ?  

    রঙ্গমঞ্চ
    সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়াম

    প্রথম দুই ম্যাচই ব্যাটিংয়ের জন্য দারুণ ছিল সিলেটের উইকেট। একটু অসম বাউন্স ছিল, তবে এছাড়া ব্যাটসম্যানরা ছিলেন দাপুটে। শেষ ম্যাচে শিশিরের প্রভাবের কথা উল্লেখ করেছিলেন মাশরাফি। শেষ ম্যাচে বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ের মুখোমুখি লড়াইয়ে রেকর্ড ৬৪০ রানও হয়েছে। 


    যাদের ওপর চোখ

    মাশরাফি বিন মুর্তজা

    খেলা চালিয়ে যাবেন- বলেছেন এমন। তবে বেশ অনেকদিন ধরেই মাশরাফি ছিলেন বাংলাদেশের ‘নেতা’। কখনও সফল হয়েছেন, কখনও হননি। অধিনায়কত্বের শেষের ঘোষণার দিন মাশরাফি বলেছেন, প্রাপ্তি-অপ্রাপ্তি নিয়ে সেভাবে চিন্তা করেননি, শুধু চেয়েছিলেন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালনে সর্বোচ্চ চেষ্টা করতে। সেই দায়িত্ব শেষ হয়ে যাচ্ছে তার, স্পটলাইটটা তো তার ওপর থাকবেই!

    ব্রেন্ডন টেইলর

    সিকান্দার রাজা সিরিজে প্রথম ফিফটি পেয়েছেন আগের ম্যাচে, তবে তাতেও হার আটকাতে পারেনি জিম্বাবুয়ে। টেইলরের খরা চলছেই। সেটি কাটবে তার? 

    সম্ভাব্য একাদশ

    পাকিস্তান সফর সামনে রেখে বিশ্রাম দেওয়া হতে পারে মুশফিকুর রহিমকে। ফিরতে পারেন সাইফউদ্দিন-মোস্তাফিজরা। সুযোগ পেতে পারেন স্কোয়াডে থাকা নাঈম-আফিফরা। 

    বাংলাদেশ

    তামিম ইকবাল, লিটন দাস, নাঈম শেখ, আফিফ হোসেন, সৌম্য সরকার, মাহমুদউল্লাহ, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মেহেদি হাসান মিরাজ, তাইজুল ইসলাম, মাশরাফি বিন মুর্তজা (অ), মোস্তাফিজুর রহমান


    জিম্বাবুয়ে

    চামু চিবাবা (অধিনায়ক), ক্রেইগ আরভিন, ওয়েসলি মাদহেভেরে, ব্রেন্ডন টেইলর (উ), শন উইলিয়ামস, সিকান্দার রাজা, টিনোটেনডা মুতোমবদজি, ডোনাল্ড টিরিপানো, এইন্সলে এন্ডলোভু, ক্রিস এমপোফু, কার্ল মাম্বা


    সংখ্যার খেলা 

    • শেষ ম্যাচে জয় পেলে মাশরাফির অধিনায়কত্বে ৫০টি ওয়ানডে জিতবে বাংলাদেশ
    • জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে কখনোই মাশরাফির নেতৃত্বে হারেনি বাংলাদেশ

     

    তারা বলেন 

    …আমি আসলে জানি না। এতটুকু নিশ্চিত, যখন দায়িত্ব দিয়েছে, আমি জানি যে, দায়িত্বটা কতো বড়। এখানে শুধু চাপ না, কতো আবেগ জড়িয়ে আছে। কতো মানুষ তাকিয়ে থাকে। কতো মানুষ খেলা দেখতে বসে যায়। ওই দায়িত্বটা সবসময়ই ছিল, এবং সেটির গুরুত্ব আমার কাছে সবকিছুর চেয়ে বেশি। আমি আমার সর্বোচ্চ দেওয়ার চেষ্টা করেছি, প্রাপ্তি-অপ্রাপ্তি বলতে পারব না। 

    মাশরাফি বিন মুর্তজা, বাংলাদেশ অধিনায়ক 

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন