• ক্রিকেট, অন্যান্য
  • " />

     

    করোনা ভাইরাসের শংকায় স্থগিত মুজিব বর্ষের দুইটি টি-টোয়েন্টি

    করোনা ভাইরাসের শঙ্কায় স্থগিত করা হয়েছে মুজিববর্ষের এশিয়া একাদশ ও অবশিষ্ট বিশ্ব একাদশের দুটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। ক্রিকেটাররা এসে খেলতে পারবেন, কিংবা খেলার পর ফিরে যাবেন- পরিস্থিতি এমন নিশ্চয়তা দিচ্ছে না বলেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিসিবি, জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান পাপন। 

    ম্যাচ দুটির সঙ্গে এর আগে পরিকল্পনায় থাকা এ আর রহমানের কনসার্টও আপাতত স্থগিত করেছে বিসিবি, “যে জিনিসটা আমরা করেছি, আমাদের হাতে দুটি অপশন ছিল। ১৮ তারিখে একটা কনসার্ট করার কথা ছিল আমাদের। আমরা ছোটভাবে করতে পারতাম এটা। কিন্তু আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি বড় ভাবেই এটা করবো। যেভাবে পরিকল্পনা করেছিলাম সেভাবেই করবো। এজন্য এখন ছোটভাবে না করে আমরা এটাকে পিছিয়ে দিচ্ছি। এটা ১৮ তারিখ হচ্ছে না। পরিস্থিতি বুঝে যখন এটা উন্নতি করবে তখন আবার এটা আমরা আয়োজন করবো বড় করে।”

    “২১ ও ২২ তারিখ যে খেলাগুলো হচ্ছে সেটা নিয়েও সমস্যা হচ্ছে। সবাই এখানে এসে খেলতে পারবে সেটা নিয়ে কোনো কথা নেই। আবার খেলে যে যেতে পারবে সেই নিশ্চয়তা নেই। অনেকগুলো বাধা আসছে অনেক জায়গা থেকে। এজন্য সিদ্ধান্ত নিয়েছি দুটা প্রোগ্রামই ‘রেফার্ড’। সামনে মাসখানেক পরে আমরা সময়মতো পরিস্থিতি বুঝে আমরা আয়োজন করবো। আপাতত স্থগিত।” 

    এমন সিদ্ধান্ত সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ি কিনা, এমন প্রশ্নের জবাবে নাজমুল বলেছেন, “পরিস্থিতি অনুযায়ী এমন সিদ্ধান্ত।” আর করোনা ভাইরাসের প্রভাব বাংলাদেশের পাকিস্তান সফরেও পড়বে কিনা, সে ব্যাপারে আলোচনা করবে বিসিবি। 

    অবশ্য পরে এক আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরি বলেছেন, “সরকার ও আন্তর্জাতিক স্বাস্থ্যবিষয়ক সংস্থার পক্ষ থেকে জনগণের জন্য সতর্কতামূলক সাধারণ পরামর্শের ভিত্তিতেই এই ইভেন্ট স্থগিত করা হয়েছে। সাময়িক এই অসুবিধার জন্য আমরা দুঃখিত, তবে সবাইকে আমাদের অবস্থান বুঝতে হবে। এটা বিশ্বজুড়েই স্বাস্থ্যগত এক সমস্যা, এবং আমরা কোনও ছাড় দিতে চাই না।” 

    বিশ্বজুড়েই ক্রীড়াঙ্গনে প্রভাব পড়েছে করোনা ভাইরাসের। ইতালির ফুটবল লিগ সিরি ‘আ’ স্থগিত করা হয়েছে, চ্যাম্পিয়নস লিগসহ বিভিন্ন ম্যাচ হচ্ছে দর্শকশূন্য অবস্থায়। ক্রিকেটে ইংল্যান্ড-শ্রীলঙ্কা বা ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচে হবে না হ্যান্ডশেক। সম্প্রতি বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগি শনাক্ত হয়েছেন বলে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যমগুলি। এর প্রভাব ছিল বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ের টি-টোয়েন্টিতে, একজন দর্শকের কাছে একটির বেশি টিকিট বিক্রি না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিসিবি। 

    করোনা ভাইরাসের কারণে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের প্রথম কয়েক রাউন্ডও কক্সবাজার থেকে ঢাকায় আনা হতে পারে। মূলত যেসব ম্যাচে বা ইভেন্টে দর্শক সমাগমের সম্ভাবনা বেশি, সেসব নিয়েই ভাবা হচ্ছে। 


     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন