• লা লিগা
  • " />

     

    করোনার প্রভাবে কমে যেতে পারে মেসি-সুয়ারেজদের বেতন

    করোনা ভাইরাসের কারণে সব ধরনের ফুটবল এখন বন্ধ। খেলা বন্ধ থাকায় ক্লাবগুলোর আয়ও কমে গেছে স্বাভাবিকভাবেই। ম্যাচের টিকিট বিক্রির আয় থেকে শুরু করে বিভিন্ন ধরনের আয়ের পথ বন্ধ হয়ে গেছে। আর এ কারণেই ক্লাবের অর্থনৈতিক অবস্থায় ভারসাম্য ধরে রাখতে মূল দলের কিছু খেলোয়াড়ের বেতন কমিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে বার্সেলোনা, এমনটাই জানাচ্ছে ইএসপিএন। আগামী সপ্তাহে এই বিষয়ে আনুষ্ঠানিক সিদ্ধান্ত আসার সম্ভাবনা রয়েছে।

    শুক্রবার এক কনফারেন্স কলে বিষয়টি নিয়ে নিজেদের মধ্যে আলোচনা করেছে বার্সেলোনা বোর্ড। সেখানে বার্সা প্রেসিডেন্ট জোসেপ মারিয়া বার্তোমেউ বোর্ডের অন্য সদস্যদের ক্লাবের ‘জটিল’ অর্থনৈতিক অবস্থা সম্পর্কে অবহিত করেন। তবে সময়োপযোগী কিছু পদক্ষেপ নিলে এই অবস্থা থেকে সহজে উৎরে ওঠা সম্ভব বলেও উল্লেখ করেন তিনি। করোনা ভাইরাসের কারণে ন্যু ক্যাম্প, সব অফিসিয়াল শপ, ক্লাব জাদুঘর এবং বিশ্বজুড়ে সব অ্যাকাডেমিগুলো এরই মধ্যে বন্ধ করে দিয়েছে। অবশ্য অনলাইনে ক্লাবের বিভিন্ন ধরনের মার্চেন্ডাইসের বিক্রি বেড়ে গেছে। তবে সেটি ঠিক আর্থিক ক্ষতির সিংহভাগ মেটানোর জন্য যথেষ্ট নয়।

    এদিকে ক্লাবের উচ্চ পর্যায়ের এই আলোচনা সম্পর্কে খেলোয়াড়রা জানেন, বলছে ইএসপিএন। বার্সার খেলোয়াড়রা স্পেনের ফুটবলারদের ইউনিয়ন এএফই-র সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে সার্বক্ষণিক যোগাযোগের মাঝে রয়েছে। গ্লোবাল স্পোর্টস স্যালারি সার্ভে’র তথ্যমতে, বার্সেলোনা ইতিহাসের একমাত্র ক্লাব, যার মূল দলের খেলোয়াড়দের গড় বাৎসরিক বেতন ১১ মিলিয়ন ইউরোর বেশি। 

    ইউরোপিয়ান ক্লাব ফুটবলে করোনা ভাইরাসের অর্থনৈতিক প্রভাব কিভাবে মোকাবিলা করা হবে, তা নিয়ে অ্যাসোসিয়েশন অফ ইউরোপিয়ান ক্লাবস (ইসিএ) এবং ইউয়েফার সঙ্গে নিয়মিত আলোচনায় নেতৃত্ব দিচ্ছেন বার্তোমেউ। এছাড়াও লা লিগা এবং ইউরোপের অন্যান্য ক্লাবগুলোর সঙ্গে চলমান এই সঙ্কট কাটিয়ে ওঠার জন্য ঐক্যবদ্ধ পদক্ষেপ গ্রহণের বিষয়টি নিয়ে আলোচনা চালাচ্ছেন ক্লাবটির প্রধান নির্বাহী অস্কার গ্রাউ।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন