• ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ
  • " />

     

    'কেনাকাটা' করতে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত বোর্নমাউথ গোলরক্ষক

    প্রিমিয়ার লিগে দ্বিতীয় দফায় করোনাভাইরাস পরীক্ষার পর জানা গিয়েছিল বোর্নমাউথের একজন খেলোয়াড় আক্রান্ত হয়েছেন। শুরুতে নাম প্রকাশ করা না হলেও বোর্নমাউথের গোলরক্ষক অ্যারন র‍্যামসডেল নিজেই জানিয়েছেন করোনায় আক্রান্ত তিনি। দ্য সানকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে দোকানে কেনাকাটার সময় আক্রান্ত হতে পারেন বলে ২২ বছর বয়সী সন্দেহ প্রকাশ করেছেন।

    "গত সপ্তাহেও আমার পরীক্ষা করা হয়েছিল। তখন ফল এসেছিল নেগেটিভ। এরপর আমি স্বাভাবিক কাজকর্মই করেছি। লকডাউনের নিয়ম মেনে শুধুমাত্র সুপারমার্কেটে গিয়েছিলাম, আর পেট্রোল স্টেশন থেকে গাড়ির জ্বালানি নিয়েছি।"


    "লকডাউনের শুরু থেকে যেমন ছিলাম, এবারও তেমনটাই সতর্ক ছিলাম। তবে মনে হচ্ছে কেনাকাটা করতে গিয়েই আক্রান্ত হলাম" - সানকে বলেছেন র‍্যামসডেল।

    এই ঘটনার ৩ দিন আগে প্রথম দফায় পরীক্ষার নেগেটিভ ফল পেয়েছিল বোর্নমাউথ। প্রিমিয়ার লিগের বাকি ক্লাবগুলোর মতো এরপরই অনুশীলন শুরু করেছিল ক্লাবটি। দ্বিতীয় দফায় প্রিমিয়ার লিগের খেলোয়াড় ও স্টাফসহ মোট ৯৯৬ জনের শরীরে করোনাভাইরাস পরীক্ষা করা হয়েছে। আর সবমিলিয়ে এখন পর্যন্ত ৮ জনের আক্রান্ত হয়েছেন এই ভাইরাসে।

    র‍্যামসডেলকে এখন ৭ দিন আইসোলেশনে থাকতে হবে। তার শরীরে কোনো উপসর্গ নেই বলেও জানিয়েছেন তিনি। সতীর্থরাও সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিচ্ছে তার উদ্দেশ্যে, "ক্লাব সাহায্য করছে। বিশেষ করে খেলোয়াড় ও স্টাফরা আমাকে বলেছে কোনো কিছু লাগলেই যেন তাদের জানাই। তারা আমাকে বাজার করে বাড়ি পর্যন্তও পৌঁছে দিতে চেয়েছে।"

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন