• লা লিগা
  • " />

     

    বার্সাতেও মেসি-মার্টিনেজ জুটি জমবে : আর্জেন্টিনা কোচ

    লাউতারো মার্টিনেজ ইন্টার মিলান ছেড়ে বার্সেলোনায় যোগ দিতে পারেন। এমন গুঞ্জন বেশ-কিছুদিন ধরেই ডালপালা মেলছে ইউরোপের দলবদলের বাজারে। তবে আর্জেন্টিনা কোচ লিওনেল স্কালোনি মনে করেন মার্টিনেজ বার্সায় গেলে মেসি তাকে উন্নতি করতে সাহায্যই করবে।



    স্কালোনির আর্জেন্টিনার অধীনেই মেসি-মার্টিনেজ জুটি ধীরে ধীরে ছন্দ খুঁজে পেয়েছে। গত বছর কোপা আমেরিকাতেও দুইজনের সমন্বয় ছিল দারুণ। জাতীয় দলে দুইজনকে কোচিং করানো স্কালোনি মনে করেন বার্সায় যোগ দিলে সেটা ফলপ্রসূই হবে মার্টিনেজের জন্য, "মার্টিনেজকে পরিপূর্ণ খেলোয়াড় হতে মেসি সাহায্যই করবে। বার্সেলোনা কোচই অবশ্য সেটা যাচাই করবেন। কিন্তু এটা সম্ভব।"- লা রেডকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেছেন আর্জেন্টিনা কোচ। 

    "লুইস সুয়ারেজ আর অ্যান্টোয়ান গ্রিযমানের সঙ্গে ৩ ফরোয়ার্ড হয়ে এক সঙ্গে খেলতেও পারবে মার্টিনেজ। কোপা আমেরিকায় মেসি, মার্টিনেজ আর আগুয়েরোর বোঝাপড়া ছিল দুর্দান্ত।" 

    গত গ্রীষ্মেই অ্যান্টোয়ান গ্রিযমানকে বিরাট অঙ্কের টাকা খরচ করে দলে ভিড়িয়েছিল বার্সা। সুয়ারেজ আর মেসি তো আগে থেকেই ছিলেন। গ্রিযমান অবশ্য বাকি দুইজনের সঙ্গে পুরোপুরি ছন্দ খুঁজে পাননি। তবে নিশ্চিতভাবেই মাঠে খেলা ফিরলে গ্রিযমানের ওপর ভরসা করবেন বার্সা কোচ কিকে সেতিয়েন। অন্যদিকে সুয়ারেজের বয়স হয়ে গেছে ৩৩। স্প্যানিশ মিডিয়ার সূত্রমতে ভবিষ্যতের কথা ভেবেই ২২ বছর মার্টিনেজকে দলে ভেড়াতে চায় বার্সা।

    ইন্টার মিলানে প্রথম মৌসুম সেভাবে আলো ছড়াতে পারেননি মার্টিনেজ। তবে এবার সিরি আতে খেলা স্থগিত হওয়ার আগ পর্যন্ত সব প্রতিযোগিতায় মার্টিনেজ করেছিলেন ১৬ গোল। রোমেলু লুকাকুর সঙ্গে সেকেন্ড স্ট্রাইকারের ভূমিকায় মার্টিনেজ হয়ে উঠেছেন ইতালির অন্যতম ধারালো ফরোয়ার্ডদের একজন। স্কালোনিও মনে করেন স্ট্রাইকারের ঠিক পেছনে মার্টিনেজের আসল পজিশন, "ও এখনও তরুণ, ওকে তাই উন্নতির ধারা অব্যাহত রাখতে হবে। মার্টিনেজের সবচেয়ে বড় গুণ হলো ও অনেক খাটতে পারে। শুধু মাত্র নিজের জন্যই দৌড়ায় না, সে তার সামনে থাকা স্ট্রাইকারের জন্যও খাটে। ভবিষ্যতে স্ট্রাইকারের পেছনে খেলেই ভালো করবে।"

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন