• ক্রিকেট, অন্যান্য
  • " />

     

    টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সম্ভাবনা কম দেখছেন মরগান, আইপিএল নিয়ে আশাবাদী কুম্বলে

    করোনাভাইরাসের কারণে আইপিএল পিছিয়ে গেছে অনির্দিষ্টকালের জন্য। অক্টোবর থেকে অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ, সেটির বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসতে পারে বৃহস্পতিবার। তবে করোনাভাইরাসের ফলে সৃষ্ট বর্তমান পরিস্থিতিতে দুটি আসরের একটিও শেষ পর্যন্ত মাঠে গড়ায় কিনা তা নিয়ে শঙ্কা রয়েছে। ইংল্যান্ড অধিনায়ক এউইন মরগানের মতে, এখনকার অবস্থা অনুযায়ী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজন করা মোটেও সহজ হবে না। তবে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের কোচ অনিল কুম্বলে আইপিএলের এবারের আসর আয়োজন নিয়ে বেশ আত্মবিশ্বাসী।

     


    টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য ১৬ টি দলের ভ্রমণ, আবাসন এবং বেশ কয়েকটি ভেন্যুতে একাধারে খেলা চালিয়ে নেওয়ার বিষয়টি প্রায় অসম্ভব বলে মনে হচ্ছে ইংল্যান্ডের সীমিত ওভারের অধিনায়ক মরগানের কাছে। তার মতে, “বর্তমান অবস্থায় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হলে আমি বিস্মিত হব। অস্ট্রেলিয়া করোনার প্রকোপ ঠেকাতে অনেক দ্রুত তাদের সীমান্ত বন্ধ করে দিয়েছিল। আর এজন্যই দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত এবং মৃতের সংখ্যা অপেক্ষাকৃত কম। আর অস্ট্রেলিয়া তাদের বর্তমান স্থিতিশীল পরিস্থিতিকে নিশ্চয়ই আবারও খারাপের দিকে ঠেলে দিতে চাইবে না। আর ১৬ টি দল নিয়ে একটি টুর্নামেন্ট আয়োজন করলে সেটির ঝুঁকি নিশ্চিতভাবেই বেড়ে যাবে।”

    শোনা যাচ্ছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পিছিয়ে গেলে ওই সময় হতে পারে আইপিএল। সাবেক ভারত কোচ ও লেগ স্পিনার অনিল কুম্বলেও আইপিএলের ভবিষ্যত নিয়ে আশাবাদী, “আমরা যদি ব্যস্ত শিডিউলের মাঝে সময় বের করতে পারি, তাহলে এই বছর আইপিএল আয়োজন করার ব্যাপারে আমরা আত্মবিশ্বাসী। ৩-৪ টি স্টেডিয়ামে দর্শক ছাড়া টুর্নামেন্টটি আয়োজন করা যায়।” স্টার স্পোর্টসের ক্রিকেট কানেক্টেড নামের অনুষ্ঠানে কুম্বলের সুরে সুর মিলিয়েছেন সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের মেন্টর ভিভিএস লক্ষ্মণও, “অবশ্যই আইপিএল এই বছর আয়োজনের সম্ভাবনা রয়েছে। আর এসব বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে স্টেকহোল্ডারদের মতামত নিতে হবে।”