• সিরি আ
  • " />

     

    শারীরিকভাবে সেরা অবস্থায় নেই রোনালদো, বললেন জুভেন্টাস কোচ সারি

    করোনার বিরতির পর মাঠে ফেরার পর থেকে শান্তি নেই ইতালিয়ান জায়ান্ট জুভেন্টাসের ঘরে। দীর্ঘ ৩ মাসেরও বেশি সময় পর নাপোলির বিপক্ষে কোপার ফাইনালে টাইব্রেকারে গড়ানো ম্যাচটি হেরে বসে তুরিনের ক্লাবটি। আর দুই ম্যাচে নিষ্প্রভ ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে নিয়ে সব মহলে শুরু হয় আলোচনা- সমালোচনা। এবার দলটির কোচ মাউরিজিও সারি কোনও রাখঢাক না করেই জানালেন, শারীরিকভাবে নিজের সেরা অবস্থানে নেই রোনালদো।


    তবে দলের সেরা খেলোয়াড়কে কঠিন সময়ে সর্বাত্মক সাহায্য করে যাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন সারি। রোনালদোর মাঝে আবারও আত্মবিশ্বাসের বিচ্ছুরণ ঘটিয়ে তার থেকে সেরাটা বের করে আনতে কাজ করে যাচ্ছেন তিনি, “আমি গতকালও আলাদা করে ক্রিশ্চিয়ানোর সঙ্গে অনেকক্ষণ কথা বলেছি। তাকে এখন নিজের ওপর বিশ্বাস রাখতে হবে, আশা করি আগামীকালই (বোলোনিয়ার বিপক্ষে) আমরা আবার সেই পুরানো রোনালদোকে দেখতে পাব। সে এখন শারীরিকভাবে তার সেরা অবস্থানে নেই, এই যা।”

    মিলানের বিপক্ষে ম্যাচে রোনালদোকে সেন্টার ফরোয়ার্ডের ভূমিকায় খেলানোর চেষ্টা করেছিলেন সারি। তবে নিজের সেই ট্যাকটিক থেকে সরে আসবেন বলেও ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে ইঙ্গিত দিয়েছেন সারি, “সে ওয়াইড এরিয়ায় খেলে ৭০০ গোল করেছে, সেটাই তার পছন্দের জায়গা এবং এটা স্বাভাবিক।” একইসাথে বৃহস্পতিবারের ফাইনালে হারের বেদনা পিছনে ঠেলে সামনে এগিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে মনযোগী হতে হবে বলেই মত তার, “খুব কাছে এসেও একটি ট্রফি জিততে না পারলে সেটা আপনাকে অনেক হতাশ করবে, এটাই স্বাভাবিক। তবে পরিস্থিতি মেনে নিতে হবে। তাই হার নিয়ে মাথা না ঘামিয়ে আমাদের পরবর্তী ম্যাচগুলো নিয়ে ভাবা উচিৎ।”

    আর জুভেন্টাসের ফর্মটাও মৌসুমের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ সময়ে পীড়া দিচ্ছে। লিগেও জুভেন্টাসের সামনে অপেক্ষা করছে কঠিন সময়। আপাতত লাৎসিও-র চেয়ে ১ পয়েন্ট এগিয়ে শীর্ষে আছে ‘তুরিনের বুড়ি’রা। তবে একটু পা হড়কালেই শীর্ষস্থানের দখল হারাতে হতে পারে জুভেন্টাসকে। রাতে বোলোনিয়ার বিপক্ষে ম্যাচে তাই একটু বেশিই সতর্ক থাকতে হবে সারির দলকে।

    এদিকে ইতালির এক সংবাদপত্রে গত রবিবার বসনিয়ান মিডফিল্ডার মিরালেম পিয়ানিচের সঙ্গে সারির সম্পর্কের অবনতির খবর প্রকাশিত হয়। সম্পর্কে ফাটলের জেরে বোলোনিয়ার বিপক্ষে ম্যাচে পিয়ানিচকে বসিয়ে রাখবেন সারি, এমনটাও লেখা হয়েছিল সেই প্রতিবেদনে। তবে সারি এই খবরটিকে একবাক্যে উড়িয়ে দিয়েছেন, “পিয়ানিচের সঙ্গে আমার খারাপ সম্পর্কের খবরটি এই মৌসুমের সবচেয়ে বড় ভুয়া খবরগুলোর একটি। আমি পিয়ানিচের সঙ্গে অনেক কথা বলি। পিয়ানিচ ক্লাবের অন্যতম খেলোয়াড় যার সাথে আমার প্রায়ই দারুণ, অর্থবহ আলোচনা হয়।”

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন