• লা লিগা
  • " />

     

    সেতিয়েনকে 'দুদিনের লোক' বলে ধুয়ে দিলেন গ্রিজমানের বাবা

    আঁতোইন গ্রিজমানের তো বটেই, তার পুরো পরিবারেরই ‘গণশত্রুতে’ পরিণত হচ্ছেন কিকে সেইতেন। অ্যাটলেটিকোর সঙ্গে ম্যাচে শেষ মুহূর্তে গ্রিজমানকে নামানোয় কড়া সমালোচনা হয়েছিল সেতিয়েনের। পরে অবশ্য সেটার জন্য আত্মপক্ষ সমর্থন করেছিলেন বার্সা কোচ। তবে এবার গ্রিজমানের ভাই ও বাবা সমালোচনায় মুখর হয়েছেন সেতিয়েনের।

    ১২০ মিলিয়ন ইউরো দিয়ে গ্রিজমানকে অ্যাটলেটিকো থেকেই নিয়ে এসেছিল বার্সা। তবে এখনও নিজেকে অপরিহার্য প্রমাণ করতে পারেননি। বিশেষ করে সেতিয়েন আসার পর আরও নড়বড়ে হয়ে গেছে তার জায়গা। অ্যাটলেটিকোর সঙ্গে ম্যাচে শেষ মুহূর্তে নামায় বেশি আলোচনা হচ্ছে, তবে সর্বশেষ চার ম্যাচের মধ্যে তিনটিতেই প্রথম একাদশে জায়গা পাননি। অ্যাটলেটিকো ম্যাচের পর সেতিয়েন অবশ্য বলেছিলেন, গ্রিজমানের জন্য তার খারাপ লাগছে। তবে তার কাছে ক্ষমা চাওয়ার কোনো দরকার নেই বলেই মনে করেন।

    তবে গ্রিজমানের পরিবার গোপন করেনি নিজেদের ক্ষোভ। গ্রিজমানের ভাই থিও  টুইট করেছেন, ‘দুই মিনিটের জন্য ওকে নামানো হয়েছে! আমার মনে হয়েছে আমি কেঁদেই ফেলব।’ বাবা অ্যালাইন টেনে এনেছেন সেতিয়েনের ক্ষমা চাওয়ার ব্যাপারটা, ‘কারও কাছে ক্ষমা চাওয়ার আগে তার কাছে তো গাড়ির চাবিটা থাকতে হবে। ব্যাপারটা তো এরকম নয়, সেতিয়েন তো দুই দিনের লোক।’ দুই জনই অবশ্য নিজেদের পোস্ট মুছে ফেলেছেন। সেই ম্যাচের পর অ্যাটলেটিকো কোচ সিমিওনেকেও গ্রিজমানের ব্যাপারে জানতে চাওয়ায় তিনি বলেছিলেন, ‘তার বলার মতো কিছু নেই।’

    এদিকে সেতিয়েনের ওপর মেসিদের আস্থা হারানোর গুঞ্জনটা আরও জোরালো হয়েছে। বার্সেলোনার বোর্ডও খুব একটা সন্তুষ্ট নয় তার ওপর। লা লিগার শিরোপা হারালে চাকুরি নিয়েও টানাটানি পড়ে যেতে পারে তার।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন