• লা লিগা
  • " />

     

    ভিএআর শুধু একটা দলকেই সাহায্য করে যাচ্ছে: বার্সা প্রেসিডেন্ট

    ডিফেন্ডার জেরার্ড পিকের পর এবার বার্সেলোনার প্রেসিডেন্ট জোসেপ মারিয়া বার্তোমিউ-ও আঙ্গুল তুললেন ভিএআরের দিকে। একই দলকে ভিএআর বারবার সুবিধা দিয়ে যাচ্ছে বলেই মত তার। গত রাতে বার্সেলোনা ভিয়ারিয়ালকে উড়িয়ে দিয়েছে, তবে আর আগেই অ্যাথলেটিক বিলবাওকে ১-০ গোলে হারিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। আর সেই ম্যাচে ভিএআরের সিদ্ধান্ত দেখেই বার্সা প্রেসিডেন্টের মনে হয়েছে ভিএআর আসলে নির্দিষ্ট একটি দলের পথ প্রশস্ত করছে।

    বিলবাও ডিফেন্ডার দানি গার্সিয়া যখন মার্সেলোকে বক্সের ভেতর ফাউল করেন, তখন ভিএআরের সাহায্য চান রেফারি। পিচসাইড মনিটরে ফাউলের ফুটেজ দেখে মাদ্রিদকে পেনাল্টি দেন রেফারি জোসে গঞ্জালেজ। স্পট কিক থেকে ম্যাচ মাদ্রিদের একমাত্র গোলটি করেন সার্জিও রামোস। তবে এরপরই যখন বিলবাওয়ের রাউল গার্সিয়াকে অনেকটা একই কায়দায় বক্সের ভেতর আটকে দেওয়ার চেষ্টা করেন রামোস, তখন আর বিলবাওকে পেনাল্টি দেওয়ার প্রয়োজন বোধ করেনি ভিএআর।


    আর এই ঘটনা দেখেই ক্ষেপে গেলেন বার্সা প্রেসিডেন্ট বার্তোমিউ। কোনও রাখঢাক না করেই বললেন, “আমি বিলবাওয়ের খেলাটা দেখেছি। মাদ্রিদের আরেকটি জয়। আমাদের কথা হচ্ছে যেটা আমি বারবার বলব, বলতে খারাপ লাগে, তবে বিশ্বের সেরা লিগে ভিএআর যেই পর্যায়ে থাকা উচিৎ, এটা এখন সেই পর্যায়ে নেই। লিগ নতুনভাবে শুরু হওয়ার পর থেকেই এটা ঠিকভাবে পরিচালিত হচ্ছে না। আর এতে করে ম্যাচের ফলাফলে প্রভাব পড়ছে।”

     “মনে হচ্ছে, এটা একটা দলকেই সাহায্য করে যাচ্ছে। অনেকগুলো ম্যাচে সেই একটা দলই সাহায্য পাচ্ছে। আর অনেক দল এতে করে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। আমি আগেও স্প্যানিশ ফুটবল ফেডারেশনের সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছি। ভিএআরের উচিৎ রেফারিদের সাহায্য করা। তবে গত কয়েক সপ্তাহে সবাই ভিএআরের যে রূপ দেখছেন, এটা ঠিকভাবে চলছে না।”

    ডিসেম্বরে রিয়াল সোসিয়েদাদের বিপক্ষে ২-২ গোলে ড্র করার পরও ভিএআর নিয়ে অভিযোগ করেছিল বার্সেলোনা। তবে বার্তোমিউ নির্দিষ্টভাবে লিগ নতুনভাবে শুরুর পরই ভিএআর সমস্যা বেশি হচ্ছে বলে উল্লেখ করেছেন। বিলবাওয়ের ইকার মুনিয়াইন এবং রিয়াল সোসিয়েদাদও মাদ্রিদের বিপক্ষে ম্যাচের পর ভিএআর নিয়ে নিজেদের অসন্তুষ্টির কথা জানিয়েছেন।

    তবে রিয়াল মাদ্রিদ অধিনায়ক রামোস এসব অভিযোগকে এক ঝটকায় উড়িয়ে দিয়েছেন। রেফারিদের সাহায্যের ফলে শিরোপার দৌড়ে এগিয়ে তারা, এই মন্তব্যের সঙ্গে সরাসরি দ্বিমত প্রকাশ করেছেন তিনি। একইসঙ্গে প্রতিপক্ষদের নিজেদের নিয়ে ভাবতে পরামর্শ দিয়েছেন রামোস।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন