• লা লিগা
  • " />

     

    ক্লাব ছাড়ার কথা মাথায় আসছে না বার্সা কোচ সেতিয়েনের

    রিয়াল মাদ্রিদের কাছে লিগ শিরোপা হারালেও পদত্যাগ করছেন না বার্সেলোনা কোচ কিকে সেতিয়েন। ওসাসুনার সঙ্গে বার্সেলোনার হারের পর মেসি দলকে ‘অধারাবাহিক’ এবং ‘দুর্বল’ বলেছিলেন। জানুয়ারির পর থেকেই দলের পারফরম্যান্সের বেশি খারাপের দিকে গিয়েছে বলেও মন্তব্য করেছিলেন মেসি, মন্তব্যটি মেসি সেতিয়েনকে উদ্দেশ্য করেই করেছিলেন বলে ধারণা করছিলেন অনেকে। তবে মেসির এসব মন্তব্যকে মোটেই ব্যক্তিগতভাবে নিচ্ছেন না বার্সা কোচ।

    মেসি লিগে ব্যর্থতার জন্য তাকে এককভাবে দোষারোপ করেছেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে সেতিয়েন বলেন, “না, একদমই না। বিভিন্ন সময়ই আমাদের অনেক কথা ভুলভাবে ব্যাখ্যা করা হয়। হতাশার মুহূর্তে এমনটা হতেই পারে।”


    ক্লাবের বিভিন্ন পর্যায়ে আশু পরিবর্তন না আনলে আগামী মাসে চ্যাম্পিয়নস লিগে নাপোলির বিপক্ষেও জয়ের সম্ভাবনা ক্ষীণ বলে মন্তব্য করেছিলেন মেসি। তবে সেতিয়েন এক্ষেত্রে মেসির সঙ্গে পুরোপুরি একমত হচ্ছেন না, “কিছু বিষয়ে আমরা একমত হই, কিছু বিষয়ে না। মেসি ঠিকই বলেছে, যদি আমরা খারাপ খেলি তাহলে আমরা কিছুই জিতব না। তবে কিছু ম্যাচে আমরা বেশ ভালোও খেলেছি, সুতরাং সেভাবে খেললে আমাদের জয়ের সম্ভাবনা রয়েছে। আমাদের আরও ধারাবাহিক হতে হবে। আমরা ভিয়ারিয়ালের সঙ্গে যেভাবে খেলেছি, সেভাবে নিয়মিত খেলতে পারলে চ্যাম্পিয়নস লিগ জেতা সম্ভব।”

    তবে সেতিয়েন আসার পর থেকেই খেলোয়াড়দের সঙ্গে কোচিং স্টাফদের দূরত্বের খবর শিরোনাম হয়েছে অনেকবার। আর বার্সেলোনা প্রেসিডেন্ট জোসেপ মারিয়া বার্তোমেউ-ও বিষয়টি সম্পর্কে জানেন, তবে ইএসপিএনের সূত্র বলছে, এক্ষেত্রে তড়িঘড়ি কোনও সিদ্ধান্ত নিতে চান না বার্সা প্রেসিডেন্ট। তবে লিগ ব্যর্থতার কারণে এবং দলের অভ্যন্তরে অশান্তির ফলে সেতিয়েন নিজে ক্লাবে তার ভবিষ্যৎ নিয়ে কী ভাবছেন এমন প্রশ্নের জবাবে বেশ অকপট বার্সা কোচ, “যেদিন আমি এখানে এসেছিলাম, সেদিনই বলেছিলাম শেষদিন পর্যন্ত উপভোগ করে যাব। আমি এখনও উপভোগ করছি। কাজটা খুব সহজ হবে এমনটা কখনোই ভাবিনি। এখানে যা হচ্ছে তার সব কিছুরই আগে কখনও না কখনও অভিজ্ঞতা হয়েছে আমার। ক্লাব ছাড়ার কথা আমার একবারও মাথায় আসেনি।”

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন