• লা লিগা
  • " />

     

    কেমন হবে টনি ক্রুজের বিদায়ী ম্যাচের একাদশ?

    রিয়াল মাদ্রিদ মিডফিল্ডার টনি ক্রুজের বয়স এখন ৩০। ফিট থাকলে আরও অন্তত পাঁচ বছর সর্বোচ্চ পর্যায়ে নির্দ্বিধায় খেলতে পারবেন। তবে এখনই নিজের বিদায়ী ম্যাচের একাদশ নির্বাচন করে নিয়েছেন এই জার্মান। মূলত তার ভাই ফেলিক্সের পডকাস্ট ‘এইনফাখ মাল লুপেনে’ গিয়ে এক শ্রোতার অনুরোধে এই একাদশ সাজিয়েছেন তিনি।

    একাদশ বানানোর আগে এতো দ্রুত নিজের অবসরের সময় নিয়ে ভাবতে তার অদ্ভুত লাগছে বলেও জানান ক্রুজ। একাদশ তৈরির পর সেটির ছবি নিজের টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে পোস্ট করেছেন তিনি। ক্যারিয়ারের বিভিন্ন যেসব খেলোয়াড়দের সঙ্গে খেলেছেন তিনি, তাদের মধ্য থেকেই ১০ জন খেলোয়াড়কে বেছে নিয়েছেন তিনি।


    জার্মান জাতীয় দল এবং বায়ার্ন মিউনিখের গোলরক্ষক ম্যানুয়েল নয়ারকে গোলপোস্ট সামলানোর দায়িত্ব দিয়েছেন তিনি। এরপর তিনজনের ব্যাকলাইনে বর্তমান মাদ্রিদ অধিনায়ক সার্জিও রামোস এবং তার বায়ার লেভারকুজেনের সময়কার দুই সতীর্থ রেইনার্টজ ও কাস্ত্রোকে রেখেছেন তিনি। ৩-৪-৩ ফর্মেশনে চারজনের মধ্যমাঠে তিনি নিজে তো রয়েছেনই, সঙ্গে তার দুই মাদ্রিদ সতীর্থ লুকা মডরিচ এবং কাসেমিরোকে রেখেছেন ক্রুজ। আর বায়ার্ন মিউনিখের জশুয়া কিমিখকে দিয়ে তিনি পূরণ করছেন মধ্যমাঠের লাইনআপ।

    ক্রুজের বিদায়ী একাদশে আক্রমণভাগের দুই পাশে থাকবেন সাবেক মাদ্রিদ সতীর্থ ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো এবং জার্মান সতীর্থ থমাস মুলার। আর সেন্টার ফরোয়ার্ড হিসেবে বিশ্বকাপের রেকর্ড গোলস্কোরার মিরোস্লাভ ক্লোজাকে রেখেছেন ক্রুজ।

    ৮ আগস্ট ম্যানচেস্টার সিটির বিপক্ষে চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোর দ্বিতীয় লেগ খেলবে রিয়াল মাদ্রিদ। প্রথম লেগে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে ২-১ গোলে হেরে গিয়েছিলেন ক্রুজরা।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন