• সিরি আ
  • " />

     

    'ভালো কোচ হওয়ার জন্য ভালো খেলোয়াড় হওয়াই যথেষ্ট নয়', পিরলোর উদ্দেশ্যে গাত্তুসো

    এক ঝটকায় সব কিছু বদলে গেল জুভেন্টাসে। লিওঁ-র কাছে অ্যাওয়ে গোলের গ্যাঁড়াকলে পড়ে চ্যাম্পিয়নস লিগ থেকে বিদায় নেওয়ার পরদিনই চাকরি গেল কয়েকদিন আগেই সিরি আ-র শিরোপা এনে দেওয়া কোচ মা\রিজিও সারির। এরপর কোচের সন্ধানে মোটেও কালক্ষেপণ করেনি ‘তুরিনের বুড়ি’রা। সাবেক অধিনায়ক আন্দ্রেয়া পিরলোকে এরই মধ্যে বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে রোনালদো-দিবালাদের দায়িত্ব। কোচ হওয়ার পর থেকে বন্ধুদের শুভকামনা পাচ্ছেন পিরলো। আলেসান্দ্রো দেল পিয়েরো, জিয়ানলুইজি বুফনরা সাবেক সতীর্থকে নতুন অধ্যায়ের জন্য শুভকামনা জানিয়েছেন। তবে নাপোলির ম্যানেজার এবং পিরলোর সাবেক সতীর্থ জেনারো গাত্তুসো সাবেক সতীর্থকে মনে করিয়ে দিলেন বাস্তবতা।


    কোচিংয়ে একেবারেই অনভিজ্ঞ জুভেন্টাসের নতুন ম্যানেজার পিরলো। মাত্র গত সপ্তাহেই ক্লাবটির অনূর্ধ্ব-২৩ দলের দায়িত্ব নিয়েছিলেন। ঘটনার পরিক্রমায় এক সপ্তাহের মধ্যেই স্বপ্নের চাকরিটি পেয়ে গেছেন তিনি। তবে এই কাজটি যে কতটা কঠিন সেটাই যেন সতর্কবাণীর মাধ্যমে সতীর্থকে বোঝাতে চাইলেন গাত্তুসো, “সে ফেঁসে গেছে... চাকরিটার মানে এটাই। সে ভাগ্যবান যে জুভেন্টাসের হয়ে শুরু করতে পারছে। তবে এটা এমন একটা পেশা যেখানে শুধু ভালো খেলোয়াড়ি ক্যারিয়ার যথেষ্ট নয়। আপনাকে গবেষণা করতে হবে, অনেক পরিশ্রম করতে হবে আর পর্যাপ্ত ঘুমানোর সুযোগ পাবেন না।”

    ২০১৩ সালে অবসর নেওয়ার পর থেকেই কোচিংয়ের সঙ্গে জড়িয়ে গেছেন গাত্তুসো। সিওন, পালের্মোসহ বেশ কয়েকটি ক্লাবের সঙ্গে যুক্ত থাকার পর ২০১৭ সালে সাবেক ক্লাব এসি মিলানের দায়িত্ব নিয়েছিলেন। আর গত ডিসেম্বরে মিলান ছেড়ে নাপোলির দায়িত্ব নিয়েছেন তিনি। অপরদিকে ২০১৭ সালে পেশাদার ফুটবলকে বিদায় বলা পিরলো সবে কোচিং জগতে পা দিয়েই জুভেন্টাসের ডাগআউটে দাঁড়ানোর সুযোগ পেয়ে গেছেন।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন