• ক্রিকেট, অন্যান্য
  • " />

     

    সুইডেন জাতীয় দলের হেড কোচ হলেন জন্টি রোডস

    সুইডেন জাতীয় ক্রিকেট দলের কোচ হয়েছেন জন্টি রোডস। বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে এটি নিশ্চিত করেছে সুইডিশ ক্রিকেট ফেডারেশন।  

    “দক্ষিণ আফ্রিকান কিংবদন্তী জন্টি রোডসকে হেড কোচ হিসেবে নিয়োগ দেওয়ার মাধ্যমে সুইডিশ ক্রিকেট ফেডারেশন জুনিয়র ক্রিকেট, হাই পারফরম্যান্স ও সম্প্রসারণে বিনিয়োগ করতে চায়”, বিবৃতিতে বলেছে তারা। তাদের মতে, রোডস এরপর সুইডেনে স্থায়ী হবেন, এবং এর মাধ্যমে “তার দক্ষতা ও অভিজ্ঞতা শেয়ার করবেন দ্রুত বর্ধনশীল সুইডিশ ক্রিকেট পরিবারের সঙ্গে।” 

    এ বছরের নভেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে রোডস সুইডেনে যাবেন বলে জানিয়েছে তারা। স্টকহোমে থেকে সুইডিশ ক্রিকেট ফেডারেশনের হেডকোয়ার্টারে কাজ করবেন রোডস। 


    সুইডেনের অ-১৯ দলের ক্যাম্প


    সুইডেনে স্থায়ী হতে যাওয়া রোডসও রোমাঞ্চিত নতুন দায়িত্ব পেয়ে, “সুইডেনে নিজের পরিবার নিয়ে যাওয়া এবং সুইডিশ ক্রিকেট সম্প্রদায়ের সঙ্গে কাজ করার ব্যাপার নিয়ে আমি রোমাঞ্চিত। খুবই পারফেক্ট সময়ে এ সুযোগটা এসেছে আমার জন্য, নতুন পরিবেশে নিজের এনার্জি খরচ করার সুযোগ পেয়ে আমি কৃতজ্ঞ। শুরু করার জন্য মুখিয়ে আছি আমি।” 

    এই মুহুর্তে সংযুক্ত আরব আমিরাতে আছেন রোডস, আইপিএলে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের ফিল্ডিং কোচের দায়িত্ব পালন করছেন তিনি। 

    “সম্প্রসারণ ও মূল ক্ষেত্র হিসেবে আমাদের লক্ষ্য জুনিয়র ক্রিকেট ও হাই পারফরম্যান্সে। এই খেলার ভবিষ্যতের টেকসই হওয়াসহ ক্রিকেটারদের উজ্জীবিত করতে জন্টি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। আমাদের ছোট কিন্তু উচ্চাকাঙ্ক্ষী দলে তাকে পেয়ে আমরা আনন্দিত”, বলেছেন সুইডিশ ক্রিকেট ফেডারেশনের স্পোর্টস ডিরেক্টর বেন হ্যারাডাইন। 

    রোডসের নিয়োগের ঘোষণা দেওয়া বিবৃতি অনুযায়ী, গত দুই বছরে সুইডেনে ক্রিকেটে অংশগ্রহণ বেড়েছে ৩০০ শতাংশ। সে দেশে দ্রুত বর্ধনশীল খেলার তালিকায় দুইয়ে আছে ক্রিকেট। তাদের বিচিত্র অধিবাসীদের মাঝে ক্রিকেটকে পরিচিত করার ক্ষেত্রে নানা পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করছে তারা। 

    এর আগে দক্ষিণ আফ্রিকা জাতীয় দল, আইপিএলে পাঞ্জাব ছাড়াও মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের হয়ে কাজ করেছেন রোডস। 


     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন