• ক্রিকেট, অন্যান্য
  • " />

     

    প্রশাসনিক জটিলতায় আরও একটি স্পন্সর হারাল দক্ষিণ আফ্রিকা

    প্রশাসনিক সংকটের কারণে দক্ষিণ আফ্রিকা ক্রিকেটের বাণিজ্যিক চুক্তিগুলো অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়ে যাচ্ছে। ওয়ানডে ক্রিকেটে দক্ষিণ আফ্রিকার মূল স্পন্সর মোমেন্টাম ক্রিকেট সাউথ আফ্রিকার (সিএসএ) সঙ্গে চুক্তি নবায়ন না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ২০২১ সালের এপ্রিল পর্যন্ত সিএসএ-র সঙ্গে চুক্তি রয়েছে তাদের।

    দক্ষিণ আফ্রিকার পুরুষ দলের ওয়ানডে স্পন্সরশিপ ছাড়াও বয়সভিত্তিক বিভিন্ন দলের পৃষ্ঠপোষকতাও না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মোমেন্টাম। তবে ২০২৩ সাল পর্যন্ত নারী দলের স্পন্সর হিসেবে থাকবে প্রতিষ্ঠানটি। স্পন্সরশিপ নবায়ন না করার পেছনে সিএসএ-র বর্তমান প্রশাসনিক জটিলতা এবং ইমেজ সংকটকে কারণ হিসেবে উল্লেখ করেছে তারা। একইসঙ্গে প্রতিষ্ঠানটি দক্ষিণ আফ্রিয়া ক্রিকেটকে দ্রুত জটিলতা নিরসনে চাপ দিয়ে যাবে বলেও জানিয়েছে মোমেন্টাম।

    মোমেন্টামের আগে দক্ষিণ আফ্রিকার টেস্ট স্পন্সর স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকও গত ডিসেম্বরে একই কারণে চুক্তি থেকে সরে গেছে। স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক সরে যাওয়ার পর মোমেন্টামও চুক্তি নবায়ন না করার হুমকি দিয়েছিল। তারা ৬ টি শর্ত দিয়ে সিএসএ-কে আল্টিমেটাম দিয়েছিল। সেটা অনুযায়ী সিএসএ-র প্রধান ক্রিস নেনজানি এবং সহ-সভাপতি বেরেসফোর্ড উইলিয়ামসের পদত্যাগ দাবী করেছিল তারা। নেনজানি পদ ছাড়লেও বোর্ডের বর্তমান প্রধানের দায়িত্বে রয়েছেন উইলিয়ামস।

    ১১ সেপ্টেম্বর দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেট বোর্ড ও এর উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের দায়িত্ব থেকে সরে যেতে বলেছিল সে দেশের সরকার। দেশটির সব ধরনের খেলাধুলার সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা ‘সাউথ আফ্রিকান স্পোর্টস কনফেডারেশন অ্যান্ড অলিম্পিক (এসএএসসিওসি)’ কমিটি এ নির্দেশ দিয়েছে। তাদের মতে ‘২০১৯ সালের ডিসেম্বর থেকে বোর্ডে চলা অব্যবস্থাপনা ও বিশৃংখলার’ নিরসনে বর্তমান প্রশাসনের সরে যাওয়া প্রয়োজন। 

    তবে দক্ষিণ আফ্রিকার সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী সরে যেতে অস্বীকৃতি জানায় দেশটির ক্রিকেট বোর্ড। গত শুক্রবার এক বিবৃতিতে এসএএসসিওসি-র বিশ্লেষণ প্রত্যাখ্যান করে সাউথ আফ্রিকা ক্রিকেট আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার হুঁশিয়ারি দেয়

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন