• সিরি আ
  • " />

     

    ক্রোটনের বিপক্ষে ড্র করলো রোনালদোবিহীন দশজনের জুভেন্টাস

    ক্রোটনের বিপক্ষে লাল কার্ড, বিতর্কিত অফসাইডের ম্যাচে পয়েন্ট হারিয়েছে জুভেন্টাস। এই মৌসুমেই সিরি বি থেকে সিরি আ-তে আসা দলটির বিপক্ষে শুরু থেকেই নড়বড়ে ছিল জুভেন্টাস। মাত্র ১২ মিনিটেই ক্রোটনের সিমিওন নোয়ানকো পেনাল্টি থেকে গোল করে দলকে এগিয়ে দেন, গোল হজমের ৯ মিনিট পর সমতায় ফিরে আসে জুভেন্টাস।

    এই মৌসুমে দলে আসা দুই নতুন মুখ ফেদেরিকো কিয়েসা এবং আলভারো মোরাতার দারুণ সংযোগে সমতাসূচক গোল পায় জুভেন্টাস। ফিওরেন্টিনা থেকে আসা কিয়েসার অ্যাসিস্টে বল জালে পাঠিয়ে জুভেন্টাসকে সমতায় ফেরান মোরাতা। ৭৭ মিনিটে আবারও বল জালে পাঠিয়েছিলেন তিনি, তবে সূক্ষ্ম অফসাইডে বাতিল হয়ে যায় সেই গোল।

    মোরাতার পায়ের গোড়ালির অংশ অফসাইড লাইনের বাইরে থাকায় গোলটি টিকেনি। অবশ্য সেই গোলের আগেই দশজনের দলে পরিণত হয়েছিল জুভেন্টাস। ৬০ মিনিটে ক্রোটনের লুকা সিগারিনিকে ট্যাকল করে জুভেন্টাস অভিষেকে সরাসরি লাল কার্ড দেখেছেন প্রথম গোলের কারিগর কিয়েসা।

    রোনালদোবিহীন জুভেন্টাসের আক্রমণভাগ এদিন ম্যাচের বেশিরভাগ সময়ই নিষ্ক্রিয় ছিল। পুরো ৯০ মিনিটে ক্রোটনের গোলে মাত্র দুটি শট নিতে পেরেছিল মোরাতা, পোর্তানোভা এবং কুলুসেভস্কির আক্রমণভাগ। এই ভুলে যাওয়ার দিনে অবশ্য বুফনের আর একটি মাইলফলক হয়ে গেছে। সিরি আ ইতিহাসের প্রথম ফুটবলার হিসবে ৬৫০ ম্যাচ খেলেছেন বুফন। তার যখন অভিষেক, কালকের একাদশের সাত জনের তখন জন্মই হয়নি। 

    ম্যাচে পয়েন্ট হারানোর জন্য নিজের দলের ‘অসাবধানতা’কেই দায়ী করেছেন জুভেন্টাস কোচ আন্দ্রেয়া পিরলো, “গত দুই ম্যাচেই এক পর্যায়ে আমাদের দশজনের দলে পরিণত হতে হয়েছে আমাদের অসাবধানতার কারণে। তাই আমাদের বেশি লড়াই করতে হয়েছে। আমরা একটি তরুণ দল, আমাদের আরও কাজ করতে হবে।”

    ৪ ম্যাচ শেষে ৮ পয়েন্ট নিয়ে গোল ব্যবধানে লিগ টেবিলের চতুর্থ স্থানে রয়েছে জুভেন্টাস।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন