• লা লিগা
  • " />
    X
    GO11IPL2020

     

    মেসিকে প্রতিদ্বন্দ্বীদের হাতে তুলে দিতে চাননি, সেজন্যই এত কিছু করেছিলেন বার্তোমেউ

    মেসির বার্সা ছাড়ার ‘উপাখ্যান’ শেষ হয়েছে বেশ অনেকদিন হল। তবে সেই সময়ে নিজের ভূমিকার জন্য এখনো সাফাই দিতে হচ্ছে বার্সেলোনা সভাপতিকে। এবার সেই ঘটনা নিয়ে এক সাক্ষাৎকারে নিজের পক্ষে সাফাই গাইতে গিয়ে ইয়োসেপ মারিয়া বার্তোমেউ বললেন, মেসিকে প্রতিদ্বন্দ্বীদের হাতে তুলে দিতে চাননি, আর সেজন্যই তাকে কঠোর হতে হয়েছে।

    বার্সার ভালোর কথা ভেবেই মেসিকে যেতে দেননি বলে নতুন সেই সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন বার্তোমেউ, “ক্লাবের অর্থনৈতিক অবস্থা স্থিতিশীল করতে আমি কিছু খেলোয়াড়কে বেচে দিতে চাই বলে তখন অভিযোগ করা হয়েছিল। এটা অসত্য। আমি ক্লাবের স্বার্থ সংরক্ষণ করেছি, মেসিকে আমাদের কোনো প্রতিদ্বন্দ্বীর শিবিরে যোগ দিতে দেইনি।”

    মেসি তখন ক্লাব ছাড়লে সাবেক গুরু পেপ গার্দিওলার ম্যানচেস্টার সিটিতে যোগ দিতেন বলে তখন গুঞ্জন উঠেছিল। তবে শেষ পর্যন্ত গোলের সঙ্গে এক বিস্ফোরক সাক্ষাৎকারে ক্লাব এবং সভাপতির অনেকগুলো অভিযোগ এনে এবং ক্লাবকে আদালতে নিয়ে যেতে চান না জানিয়ে ক্লাবে থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্তের কথা জানান।

    মেসি এককভাবে চুক্তি বাতিল করে দিয়ে ক্লাব ছাড়তে চেয়েছিলেন, তবে সেটি করার সময় ততদিনে পেরিয়ে গিয়েছিল বলে নতুন এই সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন বার্তোমেউ, “মেসির সঙ্গে ক্লাবের চুক্তি আছে। এককভাবে চুক্তি বাতলের সময় পেরিয়ে গিয়েছে। আর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ছিল, ক্লাবে মেসিকে রেখে নতুন একটি প্রজেক্ট নিয়ে কাজ শুরু করা। হয়ত ক্লাব ছাড়তে না পেরে সে অখুশি, তবে আমি তাকে এবং তার পরিবারকে বোঝাতে চেষ্টা করেছি যে আমরা তাকে যেতে দিতে পারি না। কোমান প্রজেক্টের মূল স্তম্ভই মেসি।”

    এই মৌসুমেই মেসির সঙ্গে ক্লাবের চুক্তির মেয়াদ শেষ হচ্ছে। বর্তমান প্রেক্ষাপটে ক্লাবের সঙ্গে মেসির নতুন চুক্তি স্বাক্ষর তো দূরের কথা, আলোচনা শুরু করাও অসম্ভব মনে হচ্ছে। তবে বার্তোমেউর বিশ্বাস, “আশা করি, সে ক্লাবের সঙ্গে নতুন চুক্তি করবে এবং এখানেই নিজের ক্যারিয়ারের ইতি টানবে।”

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন