• লা লিগা
  • " />
    X
    GO11IPL2020

     

    দুর্দান্ত গোলে ৩৯২ দিনের খরা কাটালেন হ্যাজার্ড

    ফুলটাইম
    রিয়াল মাদ্রিদ ৪-১ হুয়েস্কা


    ৫ অক্টোবর, ২০১৯। এডেন হ্যাজার্ড রিয়াল মাদ্রিদের জার্সিতে গ্রানাডার বিপক্ষে প্রথম গোল পেয়েছিলেন সেদিন। এরপর তাকে দ্বিতীয়বার গোল উদযাপনের জন্য অপেক্ষা করতে হলো ৩৯২ দিন। হুয়েস্কার বিপক্ষে দুর্দান্ত এক গোলে ভাঙল খরা। চোট কাটিয়ে মৌসুমে প্রথমবারের মতো একাদশে সুযোগ মিলেছিল হ্যাজার্ডের। সেই সুযোগটা পুরোপুরি কাজে লাগিয়েই ফিরলেন বেলজিয়ান ফরোয়ার্ড। হ্যাজার্ডের ওই গোলের পর করিম বেনজেমা করেছেন জোড়া গোল ও ফেদেরিকো ভালভার্দেও যোগ করেছেন একটি। রিয়াল মাদ্রিদও পেয়ে সহজ এক জয়।


    ভালদেবেবাসে ম্যাচের ৪০ মিনিটে গোল করে রিয়ালকে লিড এনে দিয়েছিলেন হ্যাজার্ড। মিডফিল্ড থেকে বল পেয়েছিলেন গোলের ২৫ গজ দূরে। এরপর দারুণ এক টার্ন নিয়ে, বাম পায়ের জোরালো শটে সেখান থেকেই বল জালে জড়িয়েছেন তিনি। বিরতির ঠিক আগে বেনজেমা কাজটা সহজ করে দিয়েছিলেন আরও। ডান প্রান্তে লুকাস ভাসকেজ ক্রস করেছিলেন দূরের পোস্টে থাকা বেনজেমার দিকে। বুকে বল নামিয়ে এরপর আড়াআড়ি ফিনিশে রিয়ালের হয়ে দ্বিতীয় গোলটি করেন ফ্রেন্স স্ট্রাইকার।

    রিয়ালের শেষ ম্যাচ থেকে জিনেদিন একাদশে পরিবর্তন এনেছিলেন বেশ কয়েকটি। একাদশে ফিরেছিলেন মার্সেলো ও লুকা মদ্রিচও। বেনজেমা আর হ্যাজার্ডের সঙ্গে শুরু করেছিলেন মার্কো আসেনসিও। তবে রিয়ালের মাঠে হুয়েস্কার শুরুটাও মন্দ ছিল না। লং বলে রিয়ালের রক্ষণের পেছনের জায়গাটা কাজে লাগানোর চেষ্টা করে যাচ্ছিল হুয়েস্কা। তবে এই এই মৌসুমে লা লিগায় ফেরা দলটি দুই একবার সম্ভাবনায় আক্রমণ সাজালেও ধীরে ধীরে রঙ হারিয়েছে রিয়ালের কাছে। একবার পিছিয়ে পড়ার পর আর সেভাবে সুবিধাও করতে পারেনি তারা।

    বিরতির পর ভালভার্দে টানা দ্বিতীয় ম্যাচে গোল পেয়ে যান। বেনজেমার পাস থেকে বল পেয়ে কোণাকুণী নিচু শটে বটম কর্নারে বল জড়ান উরুগুইয়ান মিডফিল্ডার। ৫৪ মিনিটের ভেতর রিয়ালও ম্যাচে আধিপত্য আরও বাড়িয়ে নেয় তখন। মিনিট বিশেক পর ডাভিড ফেরেরিও এক গোল শোধ করে আর থিবো কোর্তোয়াকে ক্লিনশিট পেতে দেননি। পুরো ম্যাচে রিয়ালের আফসোস থাকলে ওই একটা মুহুর্ত নিয়েই থাকার কথা।

    রিয়াল গোলটা হজম করেছে কাসেমিরো উঠে যাওয়ার পর। এর আগেই হ্যাজার্ডও মাঠ ছেড়েছেন বদলি হয়ে। টনি ক্রুস, ভিনিসিয়াস জুনিয়র, রদ্রিগোদের সবাই পরে মাঠে নেমেছেন। শেষ গোলটায় রদ্রিগোর অবদান আছে। মার্সেলোর ক্রস দূরের পোস্ট থেকে হেডে বেনজেমার কাছে পৌঁছে দিয়েছিলেন। বেনজেমা আরেক হেডে গোল করে ব্যবধান বাড়িয়ে নিয়েছেন তখন। আরও একটি জয়ে রিয়াল মাদ্রিদও বার্সেলোনার সঙ্গে পয়েন্ট ব্যবধান বাড়িয়ে ৯ নিয়ে গেছে।

    দুইদিন পর চ্যাম্পিয়নস লিগে ইন্টার মিলানের বিপক্ষে খেলবে রিয়াল। দুই ম্যাচ খেলেও এখনও জয়ের দেখা পায়নি জিদানের দল। ইন্টারের অবস্থাও সুবিধাজনক নয়। দুই ম্যাচে তারা পেয়েছে দুই পয়েন্ট। ইন্টারের মুখোমুখি হওয়ার আগে তাই হুয়েস্কার বিপক্ষে জয়টা প্রেরণাই যোগানোর কথা রিয়ালকে। তবে সব ছাপিয়ে হ্যাজার্ডের ফেরাটাই আলাদা স্বস্তি এনে দিয়েছে জিদানকে। গেল মৌসুমে রিয়ালে যোগ দেওয়ার পর থেকে মাঠের চেয়ে মাঠের বাইরেই বেশি সময় কাটিয়েছেন হ্যাজার্ড। এবার ফিরলেন দারুণ এক গোল করে, কিন্তু ছন্দে কি ফিরতে পারবেন? পরের কয়েক ম্যাচেই হয়ত সেটা প্রমাণ হয়ে যাবে।

     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন