• লা লিগা
  • " />

     

    লিগে ১৮ বছরের মাঝে বার্সেলোনার সবচেয়ে বাজে শুরু, চিন্তিত কোমান

    লিগে ১৮ বছরের মাঝে বার্সেলোনার সবচেয়ে বাজে শুরু, চিন্তিত কোমান    

    লা লিগায় ছয় ম্যাচ খেলা হয়ে গেছে বার্সেলোনার, ঝুলিতে পয়েন্ট এসেছে মোটে আটটি। পয়েন্টের মানদন্ডে লিগে বার্সেলোনা এর চেয়ে বাজে শুরু করেছিল সেই ২০০২-০৩ সালে। স্বভাবতই তাতে সমর্থকদের মতো কোচ রোনাল্ড কোমানও বিষয়টি নিয়ে যারপরনাই চিন্তিত।

    শেষ চার ম্যাচে লিগে কোনো জয় পায়নি বার্সেলোনা, ছোট-বড় সব দলের কাছেই নির্বিচারে পয়েন্ট হারাচ্ছে। ১৮ বছর আগে লুই ফন হালের আমলে ছয় ম্যাচ পর এর চেয়ে কম পয়েন্ট এসেছিল বার্সেলোনার খাতায়। এর মধ্যে মৌসুমের প্রথম ক্লাসিকোতেও হেরেছে তারা, চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী এবং ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদের চেয়ে  এক ম্যাচ কম খেলে এখন ৮ পয়েন্ট পিছিয়ে আছে বার্সা। লিগ শুরু হতে না হতেই তাই শিরোপা থেকে বার্সা পিছিয়ে বহু দূর।

    আলাভেসের মাঠে গিয়ে পয়েন্ট হারানোর পর সংবাদ সম্মেলনে কোমান তার চিন্তার বিষয়টি তুলে ধরেছেন, “আমি এটায় (কম পয়েন্ট নিয়ে) চিন্তিত। বার্সার মতো দলের জন্য শেষ চার ম্যাচে ১২ পয়েন্টের জায়গায় মাত্র ২ পয়েন্ট পাওয়াটা স্বাভাবিক নয়। তবে যেটা আমি আগেই বলেছি, আমরা অনেক কিছু পরিবর্তন করছি। দলের হাবভাব নিয়ে আমার কোনো অভিযোগ নেই। আমি পারফরম্যান্স নিয়ে হতাশ সেটা ঠিক, তবে মৌসুম অনেক দীর্ঘ।”

    দলের আক্রমণভাগের ব্যর্থতাই মৌসুমের বাজে শুরুর কারণ বলে মনে করেন কোমান, "আমি ম্যাচের ফল (আলাভেস ১-১ বার্সেলোনা) নিয়ে খুবই হতাশ। ম্যাচ জিততে আক্রমণের সময় আমরা আবারও যথাযথ কাজ করতে ব্যর্থ হয়েছি। জুভেন্টাসের বিপক্ষেও একই সমস্যা ছিল, আজকেও এজন্যই ২ পয়েন্ট হারালাম। এটা কোনো হাবভাব বা মনোযোগের সমস্যা নয়,  এই সমস্যা হচ্ছে কারণ আমরা গোলের সুযোগ গ্রহণ করতে পারছি না। বার্সার মতো দল যখন এত সুযোগ পেয়ে মাত্র এক গোল করে সেটা গ্রহণযোগ্য নয়। তবে আমরা সুযোগ তৈরি করতে না পারলে আমি আরও চিন্তিত হতাম।"

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন