• ক্রিকেট, অন্যান্য
  • " />
    X
    GO11IPL2020

     

    কোয়ারেন্টিনের নিয়ম ভাঙার পর পাকিস্তানকে দেশে ফেরত পাঠানোর সতর্কতা নিউজিল্যান্ডের

    নিউজিল্যান্ডে গিয়ে কোয়ারেন্টিনের নিয়ম ভেঙে সে দেশের সরকারের সতর্কবার্তা শুনেছে পাকিস্তান দল। আর একবার এমন হলে তাদের দেশে পাঠিয়ে দেওয়া হবে, দলকে এমন জানিয়েছেন পিসিবির প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান। 

    তিনটি টি-টোয়েন্টি ও দুটি টেস্ট খেলতে নিউজিল্যান্ড গেছে পাকিস্তান, সেখানে গিয়ে ছয়জন কোভিড-১৯ পজিটিভ হয়েছেন। যদিও পিসিবি বলছে, যাত্রা শুরুর আগে লাহোরে সবাই নেগেটিভ হয়েছিলেন। একটি বিশেষ চার্টার্ড ফ্লাইটে করে অকল্যান্ড গেছে পাকিস্তান, এজন্য নিউজিল্যান্ড সরকারের বিশেষ অনুমতিও লেগেছে। এরপর ক্রাইস্টচার্চে ১৪ দিনের আইসোলেশনে থাকার কথা তাদের। তবে এরই মাঝে তাদের কোয়ারেন্টিনের নিয়ম ভাঙার কথা বলে বিবৃতি দিয়েছে নিউজিল্যান্ড সরকার। সে বিবৃতি অনুযায়ী, সিসিটিভি ক্যামেরায় পাকিস্তান স্কোয়াডের প্রটোকল না মানার প্রমাণ পেয়েছে তারা। যে ছয়জন পজিটিভ হয়েছেন, তাদেরকে আলাদা জায়গায় আইসোলেশনে নেওয়া হয়েছে। 

    “ছেলেরা, আমি নিউজিল্যান্ড সরকারের সঙ্গে কথা বলেছি, এবং তারা বলেছে যে তিন থেকে চারটি প্রটোকল ভাঙা হয়েছে”, পাকিস্তান দলকে বলেছেন ওয়াসিম, জানিয়েছে ইএসপিএনক্রিকইনফো। “তাদের এক্ষেত্রে জিরো-টলারেন্স নীতি আছে, এবং তারা আমাদের শেষ সতর্কতা দিয়েছে। আমরা বুঝতে পারছি, এ সময়টা তোমাদের জন্য কঠিন, এবং ইংল্যান্ডেও এ পরিস্থিতির ভেতর দিয়ে যেতে হয়েছে। এটা সহজ নয়। তবে এটা জাতির সম্মানের ব্যাপার। এই ১৪ দিন পার করলেই মুক্তভাবে ঘুরতে, রেস্তোঁরায় যেতে পারবে। তারা পরিষ্কারভাবে জানিয়ে দিয়েছে, আর একবার নিয়ম ভাঙলেই তারা আমাদের বাড়ি পাঠিয়ে দেবে।” 

    কোভিড-১৯ মোকাবেলায় বেশ সফল নিউজিল্যান্ডে এখন লেভেল-ওয়ানের কড়াকড়ি চলছে। তবে আইসোলেশন সেন্টারের বাইরে কোনও চলমান কেস নেই তাদের। এর আগে টানা ১০০ দিনের মতো সময়েও নতুন কোনও আক্রান্ত ছিল না তাদের। 

    “এটা জাতির সম্মানের প্রশ্ন। যদি তারা দলকে ফেরত পাঠায়, তাহলে সেটা হবে খুবই লজ্জার। আমি জানি কাজটা কঠিন, তবে নিয়ম মেনে চলো, যেসব প্রটোকল তারা দিয়েছে এসেওব মেনে চলো। নিউজিল্যান্ড সরকারের সঙ্গে ভুল করার কোনোই সুযোগ নেই আমাদের, এটা একেবারে ‘ফাইনাল ওয়ার্নিং’। জনস্বাস্থ্যের ব্যাপারে তারা আপস করবে না। নিজেদের দেশের জন্য সঠিক কাজটি করতে হবে”, এক হোয়াটস-অ্যাপ বার্তায় পাকিস্তান ক্রিকেটারদের বলেছেন ওয়াসিম। 
     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন