• সিরি আ
  • " />
    X
    GO11IPL2020

     

    জোড়া গোলে রোনালদো-লেভানডফস্কি সমানে সমান

    শীর্ষে থাকা মিলানের ওপর চাপটা বাড়াতে জয়ের বিকল্প ছিল না জুভেন্টাসের। পারমাকে উড়িয়ে দিয়ে ৪-০ গোলের জয়টা পেয়েছে, তাতে জোড়া গোল ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর। বুন্দেসলিগায় রবার্ট লেভানডফস্কির জোড়া গোলে শেষ মুহূর্তে লেভারকুসেনকে হারিয়েছে বায়ার্ন মিউনিখ। ২০২০ সালে রোনালদো-লেভানডফস্কির টুকর তাই সমানে সমানে চলছে।

    পারমার মাঠে জুভেন্টাসকে প্রথম এগিয়ে দিয়েছিলেন গত মৌসুমেই পারমায় খেলে যাওয়া মিডফিল্ডার দেজান কুলুসেভস্কি। এর তিন মিনিট পর হেড করে রোনালদো পান ম্যাচের প্রথম গোল। বিরতির পর ডান পায়ের শটে দ্বিতীয় গোলটা পেয়ে যান রোনালদো, সিরি আ তে এই মৌসুমে যা তার ১২তম। আর পুরো ম্যাচে দারুণ খেলা আলভারো মোরাতা পারমার কফিনে শেষ পেরেকটা ঠুকে দেন শেষ গোলটা করে।

    এই জয়ের পর ১৩ ম্যাচে ২৭ পয়েন্ট নিয়ে তিনেই রইল জুভেন্টাস। ১২ ম্যাচে ২৮ পয়েন্ট নিয়ে সবার ওপরে এসি মিলান, ২৭ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে ইন্টার। আজ এসি মিলান খেলবে সাসসুওলোর বিপক্ষে। ইউরোপের শীর্ষ পাঁচ লিগে এখন পর্যন্ত অপরাজিত শুধু মিলান আর জুভেন্টাসই।

    ওদিকে জার্মান লিগে লেভানডফস্কিও জোড়া গোল। তবে তার দলের জয় সহজে আসেনি। প্যাট্রিক শিকের গোলে শুরুতে এগিয়ে গিয়েছিল লেভারকুসেনই। ৪৩ মিনিটে লেভানডফস্কি সমতা ফেরান, আর ম্যাচের একদম শেষ মুহূর্তের গোলে জয় এনে দিয়েছেন দলকে। ১৩ ম্যাচে ৩০ পয়েন্ট নিয়ে তাই সবার ওপরে চলে গেল বায়ার্ন, ২৮ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে আছে লেভারকুসেন। সমান পয়েন্ট নিয়ে লাইপজিগ আছে তিনে।

    তবে কালকের জোড়া গোলে রোনালদো-লেভানডফস্কি এখন সমানে সমান। এই বছর সব প্রতিযোগিতা মিলে ৩২ গোল করেছেন রোনালদো, লেভানডফস্কির গোলও ৩২।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন