• লা লিগা
  • " />
    X
    GO11IPL2020

     

    পেদ্রি-মেসিতে বিলবাওয়ের মাঠে সেই পুরনো বার্সা

    বার্সা এই মৌসুমে বলতে গেলে অনেকটাই নিষ্প্রভ। লিওনেল মেসি নিজে কবে খারাপ মৌসুম কাটিয়েছেন ব্যক্তিগতভাবে, মনে করতে পারবেন না। কাল অনেক দিন পর মেসি নিজে খেললেন পুরনো দিনের মতো, খেলালেনও। পেদ্রি-ডি ইয়ংরাও নিজেদের কাজটা ঠিকমতো করেছেন, আর তাতেই রক্ষণের ভুলের পরও বার্সা পেয়েছে ৩-২ গোলের জয়। 

    স্কোরলাইন যেমন মনে হচ্ছে, ম্যাচটা অবশ্য সেই অর্থে থ্রিলিং ছিল না। ইনাকি উইলিয়ামসের ৩ মিনিটের গোলে বার্সা পিছিয়ে যায় শুরুতেই। কিন্তু কিছুক্ষণ পরেই গোল শোধ করে বার্সা, জবাবটা এর চেয়ে ভালোভাবে দিতে পারত না তারা। মেসির লং বলটা বুঝতে পারেননি বিলবাও গোলরক্ষক, কিন্তু ডি ইয়ং ঠিকি বুঝে লাইন থেকে সেটা কাটব্যাক করে পাঠান বক্সে। পেদ্রি জায়গামতো ছিলেন, ফার্স্ট টাচেই বল জড়িয়ে দেন জালে। দুর্দান্ত এক টিম গোলে সমতায় ফেরে বার্সা। 

    এই গোলটা যদি দুর্দান্ত হয়, পরেরটা বলতে হবে আরও ভালো কিছু। পেদ্রির সঙ্গে মেসির যুগলবন্দিটা জমে উঠেছে এবারও, মনে করিয়ে দিয়েছে সোনালী যুগের ইনিয়েস্তা-মেসি কেমিস্ট্রির। এবার দারুণ একটা আক্রমণ থেকে ওয়ান টুর পর পেদ্রির দারুণ ব্যাকহিল, সেখান থেকে গোল করেন মেসি। প্রথমার্ধ ২-১ গোলে এগিয়ে থেকেই শেষ করে বার্সা। 

    ৬২ মিনিটে আরেকটি গোল পেয়ে যান মেসি। এবারও ওপেন প্লে থেকে, আরেকটি দারুণ আক্রমণের পর জর্দি আলবার ক্রস থেকে পাওয়া বল জড়িয়ে দেন জালে। লিগে সব মিলে নয় গোল হয়ে গেল মেসির, এই মৌসুমে যৌথভাবে সর্বোচ্চ। হ্যাটট্রিকের সুযোগও পেয়েছিলেন, কিন্তু পোস্ট বাধা হয়ে দাঁড়ানোয় সেটা হয়নি। শেষ দিকে ইকার মুনাইন গোল দিয়ে একটু ভয় ধরিয়ে দিয়েছিলেন বার্সাকে, তবে সমতায় ফেরানর মতো সময় পায়নি বিলবাও। 

    এই জয়ে ১৭ ম্যাচে ৩১ পয়েন্ট নিয়ে বার্সা এখন তিনে। সমান ম্যাচে ৩২ পয়েন্ট নিয়ে রিয়াল দুইয়ে, তবে ১৫ ম্যাচে ৩৮ পয়েন্ট নিয়ে অনেকটা এগিয়ে অ্যাটলেটিকো।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন