• লা লিগা
  • " />

     

    মেসি-গ্রিজমানে বার্সার চারে চার, 'ঝড়ের মধ্যে' ড্র করে সুযোগ হারাল রিয়াল

    মেসি-গ্রিজমানে বার্সার চারে চার, 'ঝড়ের মধ্যে' ড্র করে সুযোগ হারাল রিয়াল    

    অবশেষে খানিকটা ছন্দে ফিরতে শুরু করেছে বার্সেলোনা, টানান চারটি অ্যাওয়ে ম্যাচে জয় পেয়েছে। লিওনেল মেসি আগের ম্যাচের মতো এদিনও ছিলেন দুর্দান্ত, অনেক দিন জোড়া গোলে স্বস্তি পেয়েছেন আঁতোইন গ্রিজমান। তাতেই গ্রানাডাকে ৪-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে বার্সা। তবে দিনের শেষ ম্যাচে রিয়াল মাদ্রিদের সুযোগ ছিল ওসাসুনাকে হারিয়ে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে চলে যাওয়ার। কিন্তু গত ৫০ বছরে স্পেনের 'ভয়ংকরতম ঝড়ের' মধ্যে বরফঢাকা মাঠে তারা গোলশূন্য ড্র করেছে। 

    বার্সার প্রথম গোলটা একটু অদ্ভুতই ছিল, কেউ কিছু বুঝে ওঠার আগেই তার পায়ে লেগে বল জড়িয়ে যায় জালে। শুরুতে অফসাইদে গোল বাতিল করে দেওয়া হয়েছিল, কিন্তু রিপ্লেতে দেখা গেছে গ্রানাডার একজনের পায়ে লেগে যাওয়ায় সেটা অনসাইড ছিল। এরপর বার্সা ম্যাচের কর্তৃত্ব নিয়ে নেয়। দ্বিতীয় গোলটা করেন মেসি, নিজের সেই ট্রেডমার্ক বাঁ পায়ের নিখুঁত শতে বল জড়িয়ে দেন জালে। বিল্ড আপের সময় সার্জিও বুস্কেটসের হাতে বল লাগলেও গোল বাতিল করেননি রেফারি, সেটা নিয়ে প্রতিবাদও করেছে গ্রানাডা। ৪২ মিনিটে ম্যাচের তৃতীয় গোলটাও পেয়ে যায় বার্সা, মেসি পান দ্বিতীয় গোল। এবার বক্সের ঠিক বাইরে থেকে ফ্রিকিক পেয়েছিল, মেসিকে ঠেকানোর জন্য দেয়ালের পেছনে গ্রানাডার একজন শুয়েও ছিলেন। কিন্তু মেসি দেয়ালের ওপর বা নিচ দিয়ে না গিয়ে পাশকে বেছে নিলেন, আরেকটি দুর্দান্ত ফ্রিকিকে বল জড়িয়ে দেন জালে। ৬২ মিনিটে দেম্বেলের পাস থেকে বক্সের ভেতর বল পায়ে ডান পায়ে ঠান্ডা মাথায় দ্বুতীয় গোল পান গ্রিজমান। গত বছর আগস্টের পর এই প্রথম বার্সার জার্সিতে জোড়া গোল পেলেন গ্রিজমান। এই জয়ে প্রতিপক্ষের মাঠে টানা চার ম্যাচ জিতল বার্সা। 

    বার্সার ৪-০ গোলের জয়ের পর রিয়ালের সুযোগ ছিল ওসাসুনার বিপক্ষে জয়ে শীরড়ষে উঠে যাওয়ার। ওসাসুনার বিপক্ষে ম্যাচটা হওয়া নিয়েই ছিল অবশ্য সংশয়। স্পেনে চলছে স্মরণকালের ভয়াবহ একটা তুষারঝড়, সেজন্য অ্যাটলেটিকর ম্যাচটও স্থগিত হয়ে গিয়েছিল আগেই। রিয়ালু একদিন আগেই এসে বিমানে নেমেছে ওসাসুনায়। মাঠ ঢাকা ছিল বরফে, কিন্তু ম্যাচ শেষ পর্যন্ত হয়েছে। দুই দলের কেউই স্বাভাবিক খেলা খেলতে পারেনি, পুরো ম্যাচে মাত্র তিনটি শট ছিল গোলে। বেনজেমা ও রামোসের গোল দুইটি অবশ্য অফসাইডের জন্য বাতিল হয়ে গেছে।

    ম্যাচের পর ভীষণ খেপেছেন রিয়াল কোচ জিনেদিন জিদান, 'এটা কোনো ফুটবল ম্যাচই হয়নি। কন্ডিশন ও যাত্রাটা আমাদের জন্য অনেক কঠিন ছিল। আমরা নিজেদের সাধ্যমতো সম্ভাব্য সবকিছুই করেছি, কিন্তু খেলার জন্য আদর্শ পরিবেশ ছিল না।'

    এই ড্রয়ের পর ১৮ ম্যাচে রিয়ালের পয়েন্ট ৩৭, তারা আছে দুইয়ে। ১৫ ম্যাচ খেলে ৩৮ পয়েন্ট নিয়ে সবার ওপরে অ্যাটলেটিকো। আর ১৮ ম্যাচে ৩৪ পয়েন্ট নিয়ে বার্সা উঠে এসেছে তিনে।

     

     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন