• সিরি আ
  • " />

     

    ইব্রা-লুকাকুর 'সংঘর্ষের' পর শেষ মুহূর্তে ডার্বি জিতল ইন্টার

    ইব্রা-লুকাকুর 'সংঘর্ষের' পর শেষ মুহূর্তে ডার্বি জিতল ইন্টার    

    রোমেলু লুকাকু এমনি ঠাণ্ডা মেজাজের, খুব বেশি মাথা গরম করেন না মাঠে। ইব্রাহিমোভীচের জন্য অবশ্য ঠিক তা বলা যায় না। তবে দুজনেই কাল মিলান ডার্বিতে প্রায় হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েছিলেন। পরে ইব্রা দেখেছেন হলুদ কার্ড, শেষ মুহূর্তে দশজনের এসি মিলানের বিপক্ষে গোল দিয়েছেন ইন্টার মিলানের ক্রিশ্চিয়ান এরিকসেন। আর তাতেই কোপা ইতালিয়ার মিলান ডার্বিতে জিতে সেমিফাইনালে চলে গেছে ইন্টার।

    অথচ ইব্রার জন্য ম্যাচটা মনে রাখার মতোই হচ্ছিল। ৩১ মিনিটে তার মতোই দারুণ এক ফিনিশে দলকে এগিয়ে দিয়েছিলেন ইব্রা। কিন্তু প্রথমার্ধের শেষ দিকে লেগে যায় লুকাকুর সাথে। দুজনের সতীর্থেরা পরে তাদের বুঝিয়ে সুঝিয়ে বাইরে নিয়ে যান, রেফারি দুজনকেই দেখিয়েছেন হলুদ কার্ড। সেটার জন্য লুকাকুকে না হলেও মাশুল দিতে হয়েছে ইব্রাকে। ৫৭ মিনিটে কোলারভকে ফাউল করে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখেছেন ইব্রা।

    এরপরেই দশ জনের মিলানকে চেপে ধরে ইন্টার। ৭১ মিনিটে নিকোলা বারেল্লাকে বক্সের ভেতর রাফায়েল লিয়াও ফেলে দিলে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। সেটা থেকে গোল করে ম্যাচে সমতা ফিরিয়েছেন লুকাকু। যখন মনে হচ্ছিল ম্যাচটা নির্ধারিত সময়ে ১-১ গোলে শেষ হবে, যোগ করা সময়েরও একদম শেষ মুহূর্তে ফ্রিকিক থেকে গোল করে ইন্টারকে এগিয়ে দেন এরিকসেন। এই মৌশুমে এরিকসেন ইন্টার ছাড়ছেন বলে গুঞ্জন উঠলেও ম্যাচ শেষে ইন্টার কোচ আন্তোনিও কন্তে নিশ্চিত করেছেন, অন্তত জানুয়ারিতে এরিকসেন কোথাও যাচ্ছেন না।

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন