• ওয়েস্ট ইন্ডিজের বাংলাদেশ সফর ২০২১
  • " />

     

    নেট সেশন: চোট, একাদশ নির্বাচন আর বদলে যাওয়া দৃশ্যপটের চাপে বাংলাদেশ

    নেট সেশন: চোট, একাদশ নির্বাচন আর বদলে যাওয়া দৃশ্যপটের চাপে বাংলাদেশ    

    আইসিসি ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বাংলাদেশ সফর
    দ্বিতীয় টেস্ট

    কবে, কখন
    ১১-১৫ ফেব্রুয়ারি 
    বাংলাদেশ সময় ৯.৩০ টা (০৯৩০)


    জেরমাইন ব্ল্যাকউড বসে, পাশে পোর্টেবল স্পিকারে বাজছে গান। তাদের অনুশীলনে ব্যাপারটা নতুন, তা নয়। তবে মিরপুর টেস্ট শুরুর আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্যাম্পের মেজাজ অমনই। এশিয়ার মাটিতে সর্বোচ্চ ও ইতিহাসের ৫ম সর্বোচ্চ রানতাড়া, ৩৯৫ রানের লক্ষ্যেও বিরুদ্ধ কন্ডিশনে জয়, চতুর্থ ইনিংসে কাইল মেয়ার্সের অপরাজিত ২১০ রান, পঞ্চম দিনে দুই সেশন উইকেটশূন্য-- দারুণ জয়ে সিরিজ  শুরুর আগে ব্যাকফুটে থাকা ওয়েস্ট ইন্ডিজ তো উজ্জীবিতই থাকবে!

    তবে বিপরীতে এসব তথ্য বা সংখ্যা বাংলাদেশের জন্য বিভীষিকা, তাড়া করে ফেরার কথা লম্বা সময়। আপাতত সেসবকে সঙ্গী করেই অথবা পেছনে ফেলে আবারও নেমে পড়তে হচ্ছে মিরপুরে। প্রথম টেস্ট শুরুর আগে ফেভারিট বাংলাদেশ দ্বিতীয় টেস্ট শুরুর আগে স্বাভাবিকভাবেই এখন ব্যাকফুটে। শীর্ষসারির বেশ কয়েকজন ক্রিকেটারকে ছেড়ে বাংলাদেশ সফরে আসা ওয়েস্ট ইন্ডিজই চট্টগ্রাম টেস্টে রূপকথার জয়ের পর উজ্জীবিত এখন। 
     


    মিরপুর টেস্টের আগে বাংলাদেশ স্কোয়াডে আছে চোটের হানাও। সাকিব আল হাসান ছিটকে গিয়েছিলেন আগেই, টেস্টের আগেরদিন নিশ্চিত হয়েছে, খেলতে পারবেন না ওপেনার সাদমান ইসলামও। সাকিবের চোটের কারণে দলের কম্বিনেশনেও পরিবর্তন আনতে হতে পারে তাদের। সঙ্গে আছে স্পিন-পেসের ভারসাম্যের চ্যালেঞ্জও। ১৮ জনের স্কোয়াড দেওয়া হলেও সাকিবের বদলি হিসেবে ডাকা হয়েছে সৌম্য সরকারকে। চট্টগ্রামে একমাত্র পেসার হিসেবে মোস্তাফিজুর রহমান খেললেও মিরপুরে খেলতে পারেন দুজন। এমনিতেও সাকিবের অনুপস্থিতিতে বাড়তি একজন বোলার লাগতে পারে বাংলাদেশের। 

    সেদিক থেকেও ওয়েস্ট ইন্ডিজের চাপটা ‘কম’। জোমেল ওয়ারিক্যান ও রাকিম কর্নওয়ালের স্পিন জুটির একটু উত্থান-পতন থাকলেও চট্টগ্রাম টেস্টে শেষ পর্যন্ত কার্যকর হয়েছে সেটি, তবে মরা পিচেও একটা পার্থক্য গড়ে দিয়েছিলেন শ্যানন গ্যাব্রিয়েল। বাংলাদেশের দ্বিতীয় ইনিংসে তার শর্ট বলের স্পেল ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজের ঘুরে দাঁড়ানোর অন্যতম একটা ধাপ। 


    রঙ্গমঞ্চ
    শের-ই-বাংলা জাতীয় স্টেডিয়াম, মিরপুর

    চট্টগ্রামের উইকেট শেষ পর্যন্ত থেকে ফ্ল্যাটই, তবে মিরপুরের উইকেট ঠিক তেমন থাকার কথা নয়। মোটামুটি ঘাসের ছোঁয়া আছে উইকেটে টেস্টের আগেরদিন বিকাল পর্যন্ত। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে গত বছর একমাত্র টেস্টটি এখানে খেলেছিল বাংলাদেশ, সেখানে বাংলাদেশকে ব্যাটিং করতে হয়েছিল এক ইনিংসই। 

    যাদের ওপর চোখ

    তামিম ইকবাল 

    চট্টগ্রামে প্রথম ইনিংসে করেছিলেন ৯ রান, দ্বিতীয় ইনিংসে ০। প্রথম ইনিংসে কেমার রোচের বলে ব্যাট-প্যাডের ফাঁক রেখে বোল্ড হওয়ার পর দ্বিতীয় ইনিংসে রাকিম কর্নওয়ালের বলে হুট করে ঝুঁকে পড়ে ডিফেন্ড করতে গিয়ে হয়েছিলেন এলবিডব্লিউ। তামিম ব্যাটিংয়ে নিস্প্রভ ছিলেন হোম-গ্রাউন্ডে, মিরপুরে বের হয়ে আসতে পারবেন সেই চক্র থেকে? 

    কাইল মেয়ার্স

    রূপকথার জয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের রাজপুত্তুর ছিলেন অভিষেকে চতুর্থ ইনিংসে সফলরানতাড়ায় ডাবল সেঞ্চুরি করা মেয়ার্স। এরপর জানিয়েছিলেন, কোনোভাবেই ‘ওয়ান টেস্ট ওয়ান্ডার’ হয়ে থাকতে চান না তিনি। চট্টগ্রামে এক জীবনের ইনিংস খেলে ফেলা মেয়ার্সের দিকে নিশ্চিতভাবেই নজর থাকবে মিরপুরেও। 

    সম্ভাব্য একাদশ

    একজন পেসার নাকি দুজন? সাকিবের বদলি হিসেবে কে বা কারা? সৌম্য খেলবেন, খেললে কোন ভূমিকায়-- ওপেনার নাকি অলরাউন্ড অপশন? মিরপুর টেস্টে একাদশ নির্বাচনে বাংলাদেশের সামনে আছে একগাদা প্রশ্ন। 

    বাংলাদেশ

    তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার/সাইফ হাসান, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুমিনুল হক, মুশফিকুর রহিম, লিটন দাস, তাইজুল ইসলাম, মেহেদি হাসান মিরাজ, নাঈম হাসান, মোস্তাফিজুর রহমান, আবু জায়েদ রাহি

    ওয়েস্ট ইন্ডিজ

    ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট (অ), জন ক্যাম্পবেল, শেইন মোসলি, এনক্রুমাহ বনার, কাইল মেয়ার্স, জেরমাইন ব্ল্যাকউড, জশুয়া ডা সিলভা (উই), রাকিম কর্নওয়াল, জোমেল ওয়ারিক্যান, কেমার রোচ, শ্যানন গ্যাব্রিয়েল


    সংখ্যার খেলা 

    • চতুর্থ বাংলাদেশী বোলার হিসেবে টেস্টে ১০০ উইকেট থেকে ২ ব্যবধানে দাঁড়িয়ে মেহেদি হাসান মিরাজ
    • মিরপুরে এক ম্যাচে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিজেরই, ২০১২ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ৫২৭/৪ ডি. ও ২৭৩ রানের বিপরীতে ৫৫৬ ও ১৬৭ রান করে ৭৭ রানে হেরেছিল বাংলাদেশ 
    • অভিষেক থেকে টানা কমপক্ষে ২ ম্যাচে সেঞ্চুরির রেকর্ড আছে ৯ জনের, মেয়ার্সের সামনে ১০ম ব্যাক্তি হওয়ার হাতছানি

    তারা বলেন 

    “দেখেন যে, কথায় আছে, অতীত- যেটা চলে গেছে- ওইটা নিয়ে চিন্তা না করাই ভালো। ওইখান থেকে যেগুলো ইতিবাচক জিনিস আছে, সেগুলো নিয়ে সামনে এগুতে চাই। ওই হিসেবে আল্লাহর রহমতে সবাই ইতিবাচক আছে। ইনশাআল্লাহ কালকে (কাল থেকে শুরু টেস্ট ম্যাচে) আমরা ইতিবাচক ফলাফল করতে চাই। ” 

    মুমিনুল হক, বাংলাদেশ অধিনায়ক


    “হয়তো লোকের প্রত্যাশা থাকবে, তবে আমরা এসবের জন্যই পারিশ্রমিক পাই। মাঠে নেমে প্রতিবার পারফর্ম করার জন্যই আমাদের টাকা দেওয়া হয়। আমরা প্রক্রিয়া ধরে রাখতে চাই, নিজের ওপর আস্থা রাখতে চাই। কী করতে হবে, সে ব্যাপারে আমাদের ধারণা পরিষ্কার।” 

    এনক্রুমাহ বনার, ওয়েস্ট ইন্ডিজ  
     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন