• লা লিগা
  • " />

     

    দেম্বেলে-মেসিতে ইনফর্ম সেভিয়াকে মাটিতে নামিয়ে আনল বার্সা

    দেম্বেলে-মেসিতে ইনফর্ম সেভিয়াকে মাটিতে নামিয়ে আনল বার্সা    

    দুর্দান্ত ফর্ম নিয়েইও নেমেছিল সেভিয়া, সর্বশেষ ১০ ম্যাচে তারা ছিল অপরাজিত। বার্সার রেকর্ডটাও লা লিগায় দারুণ, সর্বশেষ ১৫ ম্যাচ হারেনি তারা। শেষ পর্যন্ত বাজিমাত করল বার্সাই সেভিয়াকে ২-০ গোলে হারিয়ে উঠে গেল লা লিগার পয়েন্ট তালিকার দুইয়ে, অ্যাটলেটিকোর আরও কাছে। একটি গোল করিয়ে ও আরেকটি করে তাতে বড় অবদান রেখেছেন লিওনেল মেসি।

    ম্যাচএর প্রথম গোলটা পেতে ২৯ মিনিট পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়েছে বার্সাকে। শুরুটা ছিল বুস্কেটসের পাস থেকে, নিজেদের অর্ধের সামান্য ওপরে বল পেয়ে গেছেন মেসি। এরপর দুই ডিফেন্ডারের মাঝ দিয়ে নিখুঁত একটা বল দিয়েছেন, যেটা দারুণ এক দৌড়ের পর জালে জড়িয়ে দিয়েছেন উসমান দেম্বেলে। ক্যারিয়ারে সেভিয়ার বিপক্ষে সবচেয়ে বেশি গোল দিয়েছেন এই ফ্রেঞ্চ উইঙ্গার। এরপর বার্সা এগিয়ে যেতে পারত, কিন্তু সার্জিও দেসের শট ফিরে আসে পোস্টে লেগে।

    এরপর দুই দলই গোল করার সুযোগ পেয়েছিল। কিন্তু বাতিল হয়ে যায় দুইটি গোলই। প্রথমে ক্লেমেন্ত লেংলের অফসাইডের গোলের পর ইউসেফ এন নেসারির গোলও বাতিল হয়ে যায় অফসাইডে। মেসি এরপর গোল করার দারুণ একটা সুযোগ পেয়েছিলেন, কিন্তু বক্সে ঢুকে শেষ মুহূর্তে খেই হারিয়ে ফেলেছেন।

    শেষ পর্যন্ত বার্সার জয়টা নিশ্চিত করেছেন মেসিই। তরুণ কুরুমার সাথে ওয়ান টু এর পর দারুণ একটা দৌড়ে ঢুকে পড়েছেন বক্সে। শুরুতে তার শট গোলকিপার বোনো ফিরিয়ে দিলেও সেটা আবার এসে পরে মেসির পায়ে, এবার জড়িয়ে দিয়েছেন জালে। টানা আট ম্যাচে গোল পেলেন মেসি, গত দুই বছরে লিগে যা তার সবচেয়ে দারুণ স্ট্রিক। এই সময়ে আট ম্যাচে করেছেন ১২ গোল। সেভিয়ার বিপক্ষেও করেছেন ৩৮ গোল, লা লিগায় কোনো নির্দিষ্ট প্রতিপক্ষের বিপক্ষে যা তার সবচেয়ে বেশি। এই ম্যাচে বার্সার একটাই ক্ষতি, চোট পেয়েছেন পেদ্রি, পিকে ও আরাউহো। এর মধ্যে পেদ্রির চোটটাই সবচেয়ে গুরুতর মনে হয়েছে। এই ম্যাচের পরেই অবশ্য এই বুধবারে কোপা দেল রের সেমিতে খেলবে দুই দল। আগের লেগটা সেভিয়া জিতেছিল ২-০ গোলে।

    বার্সা এই জয়ের পর ২৫ ম্যাচে ৫৩ পয়েন্ট নিয়ে লা লিগার পয়েন্ট তালিকার দুইতে উঠে এলো। ৫৫ পয়েন্ট নিয়ে সবার ওপরে অ্যাটলেটিকো, তবে তারা ম্যাচ খেলেছে দুইটি কম।

     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন