• টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনাল ২০২১
  • " />

     

    পরিত্যক্ত প্রথম দিনের খেলা: যেভাবে ব্যবহৃত হবে রিজার্ভ ডে

    পরিত্যক্ত প্রথম দিনের খেলা: যেভাবে ব্যবহৃত হবে রিজার্ভ ডে    

    হয় বৃষ্টি বড়ই বেরসিক, অথবা তার রসিকতার সীমা খুঁজে পাওয়া মুশকিল। যাই হোক না কেন, ক্রিকেটের সঙ্গে বৃষ্টির সেই চিরায়ত বের-হয়ে-আসা-যায়-না ধরনের সম্পর্কটা অটুট এখনও। দেড়শ বছর পর ঐতিহাসিক যে ফাইনাল, তার আগে শেষ কদিন ইংল্যান্ডে ছিল সাম্প্রতিক সময়ের উত্তপ্ত আবহাওয়া, অথচ এ ম্যাচ শুরুর আগেরদিন থেকেই শুরু হলো বৃষ্টি। ফল- শুরুই হতে পারেনি সাউদাম্পটনে ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনালে নিউজিল্যান্ড ও ভারতের প্রথম দিনের খেলা। 

    আপাতত আশার কথা, রিজার্ভ ডে আছে এই টেস্টে, ফলে ২৩ জুন পর্যন্ত গড়াতে পারে ম্যাচ। ফলে ১৯ জুন শনিবার থেকে আবারও ‘শুরু’ হবে পাঁচদিনের এই ম্যাচ। তবে প্রতিদিনই খেলা শুরু হবে ৩০ মিনিট আগে। অবশ্য সামনের দিনগুলিতেও আছে বৃষ্টির পূর্বাভাস। 

    নেট সেশন: দেড়শ বছর পর টেস্ট ক্রিকেটের প্রথম 'ফাইনাল ড্যান্স'



    আইসিসির প্লেয়িং কন্ডিশন অনুযায়ী, দিনের খেলায় এক ঘন্টার বেশি সময় নষ্ট হলে দিনের শেষ ঘন্টার শুরু থেকে সেগুলো পুষিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করার কথা। তবে সে সময়ও খেলায় বিরতি আসলে প্রতি চার মিনিটে কাটা যাবে এক ওভার করে। সেসব ওভার যাবে রিজার্ভ ডে-তে। ম্যাচ রেফারি প্রতিদিন দুই দল এবং মিডিয়াকে জানাবেন- রিজার্ভ ডে-তে কতটুকু অংশ যাবে। তবে কোনো কারণে পুরো দিনে খেলা না হলে এবং পরের দিনগুলিতে সেসব পুষিয়ে দেওয়ার পরও খেলা বাকি থাকলে ব্যবহৃত হবে রিজার্ভ ডে। সেদিন সর্বোচ্চ ৮৩ ওভার বা ৩৩০ মিনিট এবং শেষ ঘন্টার খেলা হতে পারবে। 

    এ টেস্টে বৃষ্টির পূর্বাভাস ছিল, সেটি বাগড়া বাধিয়েছে শুরু থেকেই। গতকাল থেকেই ছিল বৃষ্টি, এদিন সকালেও থামেনি সেটি। আগেভাগেই পরিত্যক্ত করা হয়েছিল প্রথম সেশনের খেলা। দ্বিতীয় সেশনে কিছুক্ষণের জন্য থেমেছিল বৃষ্টি, তবে এজিয়েস বোউলের পুরো মাঠ ছিল ভিজে একাকার। চা-বিরতির আগেই তাই দিনের খেলা পরিত্যক্ত ঘোষণা করেছেন আম্পায়াররা। 

    আগেরদিনই এ ম্যাচের জন্য একাদশ ঘোষণা করেছিল ভারত। তবে চাইলেই টসের আগে সেটি পরিবর্তন করতে পারবে তারা। নিউজিল্যান্ড একাদশ ঘোষণা করেনি এখনও। 

    ভারত একাদশ 
    রোহিত শর্মা, শুবমান গিল, চেতেশ্বর পুজারা, বিরাট কোহলি (অ), আজিঙ্কা রাহানে (স-অ), ঋষভ পান্ট (উই), রবীন্দ্র জাদেজা, রবিচন্দ্রন আশ্বিন, জাসপ্রিত বুমরাহ, ইশান্ত শর্মা, মোহাম্মদ শামি

    নিউজিল্যান্ড (সম্ভাব্য) 
    টম ল্যাথাম, ডেভন কনওয়ে, কেন উইলিয়ামসন (অ), রস টেইলর, হেনরি নিকোলস, বিজে ওয়াটলিং (উই), কলিন ডি গ্র্যান্ডোম, টিম সাউদি, আজাজ প্যাটেল/কাইল জেমিসন/ম্যাট হেনরি, নেইল ওয়াগন্যার, ট্রেন্ট বোল্ট 

     

    প্রিয় প্যাভিলিয়ন পাঠক, 

    কোভিড-১৯ মহামারি বিশ্বের আরও অনেক কিছুর মতো অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ক্রীড়াঙ্গনকে। পরিবর্তিত এই পরিস্থিতিতে নতুন এক সংকটের মুখোমুখি হয়েছি আমরাও। প্যাভিলিয়নের নিয়মিত পাঠক এবং শুভানুধ্যায়ী হিসেবে আপনাদের কাছে অনুরোধ থাকবে আমাদের পাশে এসে দাঁড়ানোর। আপনার ছোট বা বড় যেকোনো রকম আর্থিক অনুদান আমাদের এই কঠিন সময়ে মূল্যবান অবদান রাখবে।

    ধন্যবাদান্তে,
    প্যাভিলিয়ন